সর্বশেষ সংবাদ

রাজগঞ্জে মন্দিরে মন্দিরে চলছে দুর্গা পূজার মহাউৎসব চলছে দেবী দূর্গার আরাধনা ও চন্ডীপাঠ

ডা: ইলিয়াস কবির /অমারেশ কুমার বিশ্বাস ,রাজগঞ্জ ( অফিস) : রাজগঞ্জের হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গা পূজাকে কেন্দ্র করে আনন্দঘন পরিবেশ বিরাজ করছে । এখানকার বিভিন্ন মন্ডপে চলছে দেবী দুর্গার আরধনা , চন্ডীপাঠ , বিভিন্ন ধরনের আধুনিক গান সহ দেশী বিদেশী ( ডি জে মিউজিক) সব ধরনের গান । শুধু হিন্দু সম্প্রদায় নয় এলাকার অন্য ধর্মের মানুষেরাও এ উৎসবে অর্ন্তভুক্ত হচ্ছেন এই মহা উৎসবে । ব্যাপক উৎসহ-উদ্দিপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্ষের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের শারদীয় দুর্গাপূজা । গত ১৫ ই অক্টবর সোমবার মহাষষ্ঠী তিথির দেবী দুর্গার বোধন ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হয়ে ৫ দিন ব্যাপী দুর্গাৎসব যাহা শেষ হবে ১৯ ই অক্টবর শক্রুবার । ঢাক- ঢোল আর শঙ্খের ধ্বনিতে ছরিয়ে পড়ছে পূজার আমেজ । সকাল থেকে মন্ডপে ভক্তরা ভির করছেন । বছর ঘুরে দেবীর আগমনীবার্তায় উৎসবের আমেজ এখন বাঙালি হিন্দুদের প্রাণে। রাজগঞ্জের প্রতিটি হিন্দু এলাকায় এখন সাজসাজ রব। এই বছর রাজগঞ্জ অঞ্চলে প্রায় ২০টি মন্দিরে অনুষ্ঠীত হচ্ছে দুর্গা পূজা । হানুয়ার জেলেপাড়া পুরাতন সার্বজনীন পুজা মন্দির ও নতুন সার্বজনীন পুজা মন্দির, মোবারাকপুর জেলেপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, মোবারাকপুর ঘোষপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, রাজগঞ্জ বাজার সার্বজনীন পুজা মন্দির ,ঝাঁপা পাটনী পাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির , ঝাঁপা ঠাকুরপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, ঝাঁপা পালপাড়া ২টি সার্বজনীন পুজা মন্দির, লক্ষীকান্তপুর সার্বজনীন পুজা মন্দির, রাজবাড়ি সার্বজনীন পুজা মন্দির, মশি^মনগর জেলে পাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, মশি^মনগর দক্ষিনপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, মদনপুর ঘোষপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির ,মদনপুর দাসপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, কোলা সার্বজনীন পুজা মন্দির , খেদাপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, লক্ষনপুর সার্বজনীন পুজা মন্দির, পারদিয়া সার্বজনীন পুজা মন্দির,সহ বিভিন্ন স্থানে এই বছর দুর্গা পুজা অনুষ্ঠীত হচ্ছে। এ বছর রাজগঞ্জের হানুয়ার জেলেপাড়া ,মোবারাবপুর ঘোষপাড়া , মোবারাকপুর জেলেপাড়ার সার্বজনীন পুজা মন্দিরে সবচেয়ে ব্যয়বহুল পূজা অনুষ্ঠীত হচ্ছে। তাই সকলের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকছে এই ৩ পূজা মন্দির ।হানুয়ার নতুন পুজা কমিটির সভাপতি উত্তম বিশ^াস ও সাধারণ সম্পাদক চিত্ত মোহন রায় বলেন, আমাদের পুজা মন্দিরে ইতিমধ্যে ষষ্ঠি ও মহাসপ্তমী পুজা শেষ হয়েছে সুন্দর ভাবে । আগামী ৩ দিন সকলেই নির্বিঘেœ আনন্দঘন পরিবেশে পূজা উৎযাপন করবে বলে আশা করছি । মোবারাকপুর ঘোষপাড়া পুজা কমিটির সভপতি আনন্দ ঘোষ বলেন পূজার ২ দুইদিন আমরা মন্ডপে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়াজন করেছি । আমি চাই সকলে এই বছর সুন্দর ভাবে পুজা উপভোগ করতে পারে । রাজগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) আকরামুল হোসেন জানিয়েছেন পুজা উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবক , আনসার ও পুলিশের সমন্বয়ে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়নে একটি করে স্ট্রাইকিং র্ফোস তাদের দায়িক্ত পালন করবে । তিনি এলাকার কোন মন্দিরকে ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করেন না । তবে সকল মন্দিরকে সমান গুরুত্বসহকারে নিরাপত্তার চাদরে বেষ্ঠিত করে রাখবেন । তিনি আরো বলেন , ধর্ম যার যার উৎসব সবার ,সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখা সবার জন্য জরুরী । এজন্য আযান ও নামাজের সময় প্রত্যেক পূজা মন্দিরে মাইক বা লাউড স্পীকারের ব্যবহার অবশ্যই বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। । মাদক সেবন ও ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

error: লাল সবুজের কথা !!