বিজ্ঞ আদালতের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ কেশবপুরে ২১ শতক জমি দখল নিতে মরিয়া প্রতিপক্ষ

78

আজিজুর রহমান, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি:

কেশবপুর উপজেলার বায়সা গ্রামে প্রতিপক্ষ আব্দুস সাত্তার বিজ্ঞ আদালতের ১৪৪ ধারা জারি ভঙ্গ করে জমি দখল নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে । উপজেলার বায়সা গ্রামের মৃত মকছেদ খাঁর ছেলে মুনছুর,মশিয়ার রহমান,আতিয়ার রহমান,মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান,২৯নং বায়সা মৌজার ১৩০ আর এস খতিয়ানে,৩০৫২ দাগের,২১শতক জমি আমরা দির্ঘদিন ধরে ভোগ দখল করে আসছি। কিন্তু একই গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে আব্দুস সাত্তার ওই জমির উপর বিজ্ঞ আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-পি ৯৩২/১৭ তারিখ ১৭/০৮/১৭ কিন্তু ওই জমির ১৪৪ ধারা জারি করার পরেও সে নিজেই ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে জমি দখল নিতে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।

এদিকে বুধবার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে জানাগেছে মুনছুর ও সাত্তার আপন মামা,ভাগনে। আমাদের নানা মৃত আবদুল কাদের ওই ২১ শতক জমি আমাদের পিতা মৃত মকছেদ খাঁর কাছে প্রায় ৪০ বছর পূর্বে জমি বিক্রি করেছিল। সেই থেকে ওই ২১ শতক জমি ভোগ দখল করে আসছি আমরা । কিন্তু ৪০ বছর পূর্বে আমাদের নানা আব্দুল কাদের মারা গেলে আপন মামা আব্দুস সাত্তার ওই সময় ওই ২১ শতক জমি দলিল করে দেবে বলে আশ্বস্ত করেছিল। তখন আমরা মামার কথা বিশ্বাস করে সেই থেকে ওই জমি ভোগ দখল করে আসছি। আমাদের মামা আব্দুস সাত্তারকে ওই জমি দলিল করে দেওয়ার কথা বলল্লে সে বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করাসহ ওই জমি দখল নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। একই গ্রামের হাফেজ হাবিবুর রহমান,নূর আলী গাজী সাংবাদিকদের জানান, মৃত আব্দুল কাদের বেঁচে থাকা কালিনি তার মেয়ে জামাই মৃত মকছেদ খাঁর নিকট ওই ২১শতক জমি বিক্রয় করেন।তারপর থেকে মৃত মকছেদ খাঁর সন্তানরা ওই জমি ভোগ দখল করতে দেখেছি।

এ ব্যাপারে সরাসরি আব্দুস সাত্তারের জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান আমার পিতা ওই ২১ শতক জমি মৃত মকছেদ খাঁর কাছে বিক্রয় করিনি। জমির কাগজপত্র আমাদের নামে থাকা সত্বেও ভাগনেরা জোর পূর্বক ২১শতক জমি দখল করে রাখে। ওই জমিতে প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য শান্তি-শৃংখলা বজায় রাখার জন্য বিজ্ঞ আদালতে একটি মামলা করি আমি।