পরীমনির সিদ্ধান্তই মেনে নেবেন তামিম!

বিনোদন ডেস্কঃ মনে হয় কপাল পুড়লো পরীমনির। জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনি সংসার বাঁধতে চেয়েছিলেন। বাগদান পর্বও সম্পন্ন করেছিলেন। কিন্তু মাঝপথে এসে বাগদান ভেঙে গেছে। কেন ভাঙলো? নানা কথা চাউর হয়েছে বাজারে। যদিও তামিম হাসান কিংবা পরীমনির কেউই মুখ খুলছেন না।

চিত্রনায়িকা পরীমনি আর বিনোদন সাংবাদিক তামিম হাসান দুই বছর ধরে চুটিয়ে প্রেম করেছিলেন। এ গল্প প্রায় সবারই জানা। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামসহ সামাজিক মাধ্যমে নিয়মিত ছবি দিতেন দু’জনই। এর মধ্যে গত ১৪ এপ্রিল তাদের বাগদান হয়। দুই পরিবারের আত্মীয়-স্বজন ছিলেন সেই বাগদান অনুষ্ঠানে। বেশ জাঁকজমকপূর্ণ ছিল অনুষ্ঠানটি। বাগদানের পর গণমাধ্যমে পরীমনি বলেছিলেন সামনের যেকোনো ১৪ই এপ্রিল তারা বিয়ে করবেন।

কিন্তু বিনোদনপাড়ায় রটেছে অন্য খবর। পরীমনি তার ফেসবুক পেজ, ইনস্টাগ্রাম থেকে বাগদানসহ তাদের দুজনের বিভিন্ন সময়ে তোলা ছবিগুলো সরিয়ে ফেলেছেন। অনেক দিন দুজনের নতুন কোনো ছবিও দেননি সামাজিক মাধ্যমে। আর তাতেই সন্দেহের মাত্রা বাড়তে থাকে। তবে বিনোদনপাড়ায় মানুষজন সন্দেহ করছেন পরীমনি আর তামিমের বাগদান ভেঙ্গে গেছে। আর বিয়ে পর্যন্ত গড়াবে না তাদের সম্পর্ক। দু’জনের ঘনিষ্ঠজনরা বলছেন, মাস দেড়েক হয় তাদের সম্পর্ক নেই। আগের মতো কারো সঙ্গে কারো কথা হচ্ছে না, দেখা হচ্ছে না।

গোপন সূত্রে জানা গেছে, বাগদানের আংটিও নাকি খুলে রেখেছেন পরীমনি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বাগদানের পরের দিনই আংটি খুলে রেখেছি। এতো ভারী আংটি কি সবসময় পরে থাকা যায়? আর ফেসবুকে ছবি না দেওয়ার ব্যাপারটি হলো আমি কাজকে সামনে আনতে চাই, বয়ফ্রেন্ডের ছবি নয়। আমার যা করা উচিত বলে মনে করছি, আমি তাই করার চেষ্টা করছি।’

তবে বাগদান ভেঙে যাওয়ার ব্যাপারে সরাসরি মুখ খুলতে চাননি পরীমনি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি একতরফাভাবে বলে কোনো লাভ নেই এ বিষয়ে। সময় হলে সবকিছুই জানবেন সবাই।’

পরীমনি আরও বলেন, ‘আমি বাগদানের সময় ঘোষণা দেয়া তারিখ অনুযায়ী আগামী কোনো এক বছরের ১৪ এপ্রিল বিয়ে করবো বলে ভেবেছিলাম। কিন্তু এটা কবে হবে তা আমি নিজেও বলতে পারছি না। আপাতত কাজ নিয়ে থাকতে চাই।’

পরী জানান, বাগদান না হলে বুঝতাম না, আমি বিয়ের জন্য একদমই প্রস্তুত না। গোষ্ঠী মেনটেইন করার যে বিশাল হিসাব আছে, সে বিষয়ে আমি ভীষণ অপরিপক্ব। সময়ই কথা বলবে।

এছাড়াও পরী অভিযোগের তীর ছোড়েন তামিমের দিকে। তিনি বলেন, ‘আমার কাজকে কেউ যদি অসম্মান করে, সেখানে আমি একচুল আপস করব না। ’

এ বিষয়ে তামিম হাসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে মান-অভিমান চলছে, এটা ঠিক আছে। আমিও এটা জানি। যেহেতু আমাদের এখনো বিয়ে হয়নি, এর মধ্যে যদি সিদ্ধান্তটা এমন হয়, তবে হতে পারে। ওর প্রতি আমার কোনো অভিযোগ নেই। এই বিষয়ে পরীর যেকোনো সিদ্ধান্তে আমার সম্মান ও সমর্থন দুটোই আছে।’

শাহ আলম মণ্ডল পরিচালিত ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু করেন পরী মণি। প্রথম ছবি মুক্তির আগেই ২০টি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে আলোচনায় আসেন তিনি।

তামিম হাসান দেশের একটি বেসরকারি রেডিওতে ‘লাভ গুরু’ নামের একটি অনুষ্ঠান করে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। শ্রোতারা তাঁকে ‘লাভ গুরু’ নামে সম্বোধন করেন। এ ছাড়া তিনি একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকার সাংবাদিক।

error: লাল সবুজের কথা !!