সর্বশেষ সংবাদ

৩৯ তম বিসিএসএ কেশবপুরের ৩ জন মেডিকেল অফিসার

আজিজুর রহমান, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি: কেশবপুরে ডাক্তার হাবিবুর রহমানের পরিবারের ৮ জনই চিকিৎসক ৩৯ তম বিসিএসএ ৩ জন মেডিকেল অফিসার হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন। ডাক্তার হাবিবুর রহমানের বাড়ি কেশবপুর পৌরসভার সাহাপাড়ায়। তিনি একজন চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার হিসাবে কর্মরত। তার স্ত্রী ডাঃ শাহানারা রহমান।

তার ৩ কন্যা ও ১ পুত্র সন্তান। বড় কন্যা ডাঃ ফারহানা রহমান ও মেয়ে জামাই ডাঃ মাহাবুবুল আলম ভেটেরিনারি ডাক্তার হিসাবে গাজীপুরে কর্মরত আছেন। তার একমাত্র পুত্র ডাঃ হাদিউর রহমান সিয়াম, ২য় কন্যা ডাঃ সানজানা রহমান লোপা ও ২য় বোন জামাই ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন ৩৯ তম বিসিএস ক্যাডার এ মেডিকেল অফিসার হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন।

ডাঃ হাদিউর রহমান সিয়াম প্রাথমিক ও ৮ম শ্রেণীতে টেলেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছিল। ২০১০ সালে এসএসসি ও ২০১২ সালে এইচএসসিতে জিপিএ ৫ পেয়ে কৃতিত্বের সহিত উত্তির্ণ হয়েছিল এবং ঢাকা মেডিকেল কলেজে ২০১৩ সালে ভর্তি হয়ে ২০১৮ সালে পাশ করে।

ডাঃ সানজানা রহমান লোপা ও তার জামাই ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন ২০০৪ সালে এসএসসি ও ২০০৬ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়ে কৃতিত্বের সাথে উত্তির্ণ হন এবং ২০০৭ সালে খুলনা মেডিকেলে ভর্তি হয়ে ২০১৪ সালের মেডিকেল পাশ করেন। এরা ৩ জন ৩৯ তম বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তির্ণ হয়ে মেডিকেল অফিসার হিসাবে নিয়োগ পেয়েছেন।

এছাড়াও ডাক্তার হাবিবুর রহমানের ছোট কন্যা ফাহরিয়া রহমান বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজে ৪র্থ বর্ষের ছাত্রী। ডাঃ সানজানা রহমান লোপা জানান, আমরা ৩ জনই একসাথে বিসিএস পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাশ করেছি এবং মেডিকেল অফিসার হিসাবে নিয়োগ পেয়েছি।

আমাদের বাংলাদেশের যেকোন প্রান্তে পোস্টিং দিলে আমাদের শিক্ষা, মেধা ও অভিজ্ঞতার আলোকে জণগনের মাঝে চিকিৎসা সেবা দিব ইনশাআল্লাহ। তাদের পিতা ডাঃ হাবিবুর রহমান পেশায় সেনাবাহিনীতে মেডিকেল কোরে চাকুরী শেষে বর্তমান কেশবপুরে চক্ষু চিকিৎসক হিসাবে কর্মরত।

তার সঙ্গে আলাপকালে তিনি জানান, আমার পরিবারের সবাই চিকিৎসক। আমরা জনগণের সেবার ব্রত নিয়ে এটাকে পেশা হিসাবে গ্রহণ করেছি এবং আমার সন্তান ও জামাইদেরকেও একই ভাবে চিকিৎসা ক্ষেত্রে জনগণের সেবা দেওয়ার মানসিকায় তৈরি করেছি।

এতকিছুর পরও আমি যেখানে বসবাস করি সেখানকার প্রতিবেশীদের মধ্যে কারও কারও অসৈজন্য মূলক আচরণের কারণে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হয়েও আমি মোটেও দূর্বল হয়নি। তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

error: লাল সবুজের কথা !!