১৫ টাকা সিট ভাড়া আর ৩৮ টাকায় খাবার খেয়ে তারা লাফালাফি করে: প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করলেন আসিফ নজরুল

22

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালের আইন বিভাগের অধ্যাপক আসিফ নজরুল বলেছেন, ‘১৫ টাকা সিটভাড়া আর ৩৮ টাকা খাওয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েই বঙ্গবন্ধু রাজনীতি করেছেন, আন্দোলন করেছেন। শুধু স্বাধীনতা আন্দোলন না, এমনকি তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীদের আন্দোলনেও পাশে দাঁড়িয়েছেন। ১৫ টাকা/৩৮ টাকার কথা তুলে একটি ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনে অংশ নেয়া ছাত্রছাত্রীদের বঙ্গবন্ধুর কন্যা তাহলে কিভাবে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করতে পারেন?’

বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) জাতীয় সংসদে দেয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় শুক্রবার (১৩ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে অধ্যাপক আসিফ নজরুল তার নিজের ফেসবুক পেইজে এসব কথা লেখেন।
তিনি আরও লেখেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ আপনি বরং হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যাংক লুট আর লক্ষ কোটি টাকা বিদেশে পাচার কিভাবে হয়েছে আপনার আমলে সেটা নিয়ে বলুন। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন।’
আসিফ নজরুল আরও লেখেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীদের সাবসিডি হয় জনগণের দেয়া করের টাকায়। ব্যাংক, শেয়ার মার্কেট আর উন্নয়ন প্রকল্প থেকে যে হাজার হাজার কোটি টাকা মেরে দেয়া হয় সেটাও আমাদেরই টাকা। সরকার প্রধান হিসেবে এ টাকার প্রধান আমানতকারী আপনি। আমাদের মাথাব্যথা জনগণের লক্ষ কোটি টাকা মেরে দেয়া নিয়ে। আমাদের মাথাব্যথা জনগণের টাকায় গরীব জনগোষ্ঠীর সন্তানদের স্বল্প খরচে পড়ানো নিয়ে নয়।’

তিনি লেখেন, ‘আওয়ামী লীগ একটি গণমানুষের সংগঠন। এর নেত্রী হিসেবে আপনার তো বিষযটি না বোঝার কথা না।’
উল্লেখ্য, কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, কথায় কথায় তারা বলে ক্লাস করবে না। ক্লাসে তালা দেয়, ক্ষতিগ্রস্ত কারা হবে? আমরা সেশনজট দূর করেছি। এদের কারণে এখন আবারও সেই সেশনজট। ১৫ টাকা সিট ভাড়া আর ৩৮ টাকা খাবার, কোথায় আছে পৃথিবীর। আজ নতুন নতুন হল বানিয়েছি। ১৫ টাকা সিট ভাড়া আর ৩৮ টাকায় খাবার খেয়ে তারা লাফালাফি করে। তাহলে সিট ভাড়া আর খাবারে বাজারদর যা রয়েছে, তাদের তা দিতে হবে। সেটা তারা দিক।