হাড়ক্ষয়ের সমস্যায় ভুগছেন, খেয়ে দেখুন ৬ খাবার

18
হাড়ক্ষয়ের সমস্যা। ছবি সংগৃহীত

লাইফস্টাইল ডেস্ক : হাড়ক্ষয় বলতে শরীরে হাড়ের ঘনত্ব কমে যাওয়াকে বুঝায়। অনেকটা মৌচাকের মতো হয়ে যায়। এতে হাড় ঝাঁজরা বা ফুলকো হয়ে যায়। এতে হাড় অতি দ্রুত ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। মারাত্মক হাড়ক্ষয়ে হাঁচি বা কাশি দিলেও তা ভেঙে যেতে পারে।

৫০ বছর পেরোনোর পর থেকে শরীরের হাড়ক্ষয়ের লক্ষণগুলো দেখা দেয়। পুরুষ ও নারীর দেহের হাড় সাধারণত ২৮ বছর বয়স পর্যন্ত ঘনত্বে বাড়ে; ৩৪ বছর পর্যন্ত তা বজায় থাকে। এর পর থেকে হাড়ক্ষয় হতে থাকে।

যাদের হাড়ক্ষয়ের ঝুঁকি বেশি তাদের হাড়ের ঘনত্ব দ্রুত কমতে থাকে। নারীদের মাসিক-পরবর্তী সময়ে হাড়ক্ষয়ের গতি বেগবান হয়। এ ছাড়া অনেক কারণ বা স্বাস্থ্যঝুঁকি হাড়ক্ষয়ের আশঙ্কা বৃদ্ধি করতে পারে।

তবে কিছু খাবার রয়েছে যা হাড়কে শক্তিশালী করে। আসুন জেনে নিই এমন কিছু খাবার সম্পর্কে-

১. দুধ ক্যালসিয়ামের ভালো উৎস হওয়ায় হাড় শক্তিশালী করতে দুধ খেতে পারেন। প্রতি এক কাপ দুধে দৈনন্দিন ক্যালসিয়ামের চাহিদার ৩০ ভাগ পূরণ হয়। এ ছাড়া দুধে থাকা ভিটামিন ডি গোটা শরীরের জন্য উপকারী।

২. হাড় শক্তিশালী করতে খেতে পারেন সবুজ শাকসবজি। বাঁধাকপি, ওকরাতে থাকা পুষ্টি ও ক্যালসিয়াম হাড় শক্ত করতে সাহায্য করে। এ সবজিগুলো দিয়ে তৈরি সালাদ, স্যুপ, স্ট্র হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে ভুমিকা রাখে।

৩. হাড় শক্তিশালী করতে কাজুবাদাম খেতে পারেন। কাজুবাদামে রয়েছে বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান ও ক্যালসিয়াম। এসব পুষ্টি উপাদান শুধু হাড়ই শক্ত করে ও স্বাস্থ্য ভালো রাখে।

৪. খেতে পারেন টক দই। তবে নিয়মিত টক দই খেলেও শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন ডি ও ক্যালসিয়াম পাওয়া যায়।

৫. নিয়মিত সূর্যের আলো ভিটামিন ডিয়ের ভালো উৎস। তাই সূর্যের আলো গায়ে লাগান।

৬. পনির ক্যালসিয়ামের খুব ভালো উৎস। নিয়মিত ৪০ গ্রাম পনির খেলে দিনের ক্যালসিয়ামের চাহিদার ৩০ শতাংশেরও বেশি পূরণ হয়। সূত্র : হেলদিবিল্ডার্জড