হারানো এনার্জি, ধারালো মগজাস্ত্র চান? ডুব দিন চায়ের কাপে

স্বাস্থ্য ডেস্কঃ এক কাপ চায়ে আপনি কাকে চান? এহো বাহ্য! আপনি কাউকে চান বা না চান, রোজ সকালে ধোঁয়া ওঠা এক কাপ চা (lovers) কিন্তু আপনাকে অনেক কিছুই দিতে পারে! যেমন? যেমন, কাপে ঠোঁট ঠেকিয়ে ছোট্ট চুমুক দিলেই নিমেষে তাজা আপনি। পেট পরিষ্কার সহজেই। সঙ্গে বাড়তি পাওনা, শরীরের সঙ্গে ফুরফুরে (energy booster) আপনার মনও।

কারণ, মগজাস্ত্র ধারালো (brain health) করতেও নাকি এক কাপ চা যথেষ্ট। এটা কথার কথা নয়, সমীক্ষা বলছে, আদা-এলাচের মতো মশলা মেশানো হোক বা লিকার চা, দুধ দিয়ে ঘন করে বানানো হোক বা চিনি-দুধ ছাড়া চা, একমাত্র এই পানীয়ই পারে আপনাকে তন্দরুস্ত রাখতে। তার জন্য রোজ সকালে এক কাপ গরমাগরম চা ডায়েটে চা-ই।

সমীক্ষা আরও বলছে, মগজাস্ত্র ধারালো করা ছাড়াও কথাবার্তা এবং আচার-ব্যবহারের জড়তা কাটাতেও নাকি চা সিদ্ধহস্ত। এমনকি, স্নায়ুর একাধিক সমস্যাও কমে নিয়মিত চা খেলে। বেজিংয়ের সিংঘুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ডা. জুনহুয়া লি জানিয়েছেন, এই জন্যেই চিন দেশে আবিষ্কৃত হলেও সারা বিশ্বে এই পানীয়ের এত আদর।

চা

এখানেই শেষ নয়, গবেষকরা বলছেন, যাঁরা নিয়মিত বারেবারে চায়ের মৌতাতে মজেন তাঁদের ধারেপাশে অ্যালজাইমার্স ঘেঁষতে পারে না। যাঁরা এই সমস্যায় ভুগছেন, তাঁরা অনেকটাই প্রতিরোধ করতে পারবেন এই সমস্যা নিয়মিত চা পান করে। এবং এই সমীক্ষা যে ভ্রান্ত নয় তা একাধিক গবেষক প্রমাণ করেছেন। অতএব, নিশ্চিন্তে ডুব দে মন চা বলে!

চায়ের অনেক গুণ:

  • নার্ভ বা স্নায়ু তাজা থাকে। আলস্য বা ঘুম কাটায়।
  • এর মধ্যে থাকা থিওফিলাইন পেশীর আড়ষ্টতা কমিয়ে শ্বাস নিতে সাহায্য করে। হৃদরোগের আশংকা কমায়।
  • এর মধ্যে থাকা থিওব্রোমাইন রক্তাচাপ কমায়।
  • এল- থিয়ানাইন ব্রেনের মধ্যে থাকা আলফা ওয়েভস মস্তিষ্ককে সতেজ রাখে। স্নায়ুকে উদ্দীপিত করে।
error: লাল সবুজের কথা !!