সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরলো কিশোর ভ্যানচালক শাহীন

মোঃ মামুন হোসেন : আহত কিশোর ভ্যানচালক শাহীন বাড়ি ফিরেছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরায় এলাকার লোকজন তাকে একনজর দেখার জন্য ছুটে আসছেন তার বাড়ির উপর। দীর্ঘ প্রায় তিন মাস পর ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে শাহিন কেশবপুরের মঙ্গলকোর্ট গ্রামের নিজ বাড়িতে ফিরে আসে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ জুন জীবিকার তাগিদে তার একমাত্র সম্বল ব্যাটারি চালিত ভ্যান নিয়ে মঙ্গলকোটের শাহীন বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু ভাগ্য বড়ই নির্মম, পূর্ব পরিকল্পিতভাবে একটা ভ্যানের লোভে চারজন মানুষরুপী জানোয়ার তাকে রক্তাক্ত জখম করে পাটকেলঘাটার ধানদিয়া ইউনিয়নের হামজামতলা নামক স্থানে পাট ক্ষেতের মাঝখানে ফেলে রেখে যায়।

স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা দর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার শারীরিক অবস্থ্যার অবনতি হলে তাকে খুলনায় রেফার করা হয় সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল। এরপর ঢামেকে চিকিৎসাধীন কিশোর শাহীনের চিকিৎসার সকল ব্যয়ভার সরকার বহন করে।

এছাড়াও তার উপর হামলাকারীদের ইতিমধ্যে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ গ্রেফতার করেছেন। দীর্ঘ তিন মাস চিকিৎসা শেষে গত বৃহঃপতিবার শাহিনকে নিয়ে বাড়িতে ফেরেন তার বাবা-মা।

স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য জহির রায়হান মুঠোফোনে বলেন, শাহীনের শারীরিক অবস্থা এখন অনেক ভালোর দিকে। তবে ডান হাতটা অনেকটা প্যারালাইজড রোগীদের মত। মাথায় ক্ষত স্থান পুরোপুরি ভাবে শুকালে এই সমস্যা ঠিক হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন ডাক্তার। শাহীনের বাবা-মা’র ইচ্ছা ছেলে সুস্থ্য হয়ে লেখাপড়া শিখে ভাল চাকরি করবে। আমাদের ছেলে আর ভ্যানগাড়ি চালাবে না। নিজেদের বসতভিটার জায়গা ও ভাল ঘর না থাকায় ইউপি সদস্য জহির রায়হানের কাছে নিজেদের একটা ঘরের দাবি জানিয়েছেন।

error: লাল সবুজের কথা !!