সাতক্ষীরা জুড়ে ঈদের বাজার জমজমাট, ক্রেতাদের উপছে পড়া ভিড়

34

মোঃ মামুন হোসেন : ঈদের আর মাত্র কয়েক দিন বাকী। ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি। ঈদকে সামনে রেখে সাতক্ষীরায় জমে উঠেছে ঈদ বাজার। নতুন পোশাক কেনার আনন্দে মেতে উঠেছে ক্রেতারা। শহরের প্রত্যেক বস্ত্রালয় ও কসমেটিক্স দোকানে চলছে জমজমাট বেচাকেনা।
নতুন পোশাকের পাশাপাশি জুতা, স্যান্ডেল ও কসমেটিক্স বিক্রি হচ্ছে পুরোদমে। সকল বিপনী বিতানগুলোতে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। তবে বিক্রেতারা জানিয়েছেন, রোজার দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে বেচাকেনা জমজমাট হয়ে উঠেছে। ক্রেতাদের পছন্দের পোশাক সংগ্রহ করতে তারা অগ্রিম কেনাকাটা শুরু করেছেন।

শহর ঘুরে জানা যায়, রোজার প্রথম থেকেই জমজমাট বেচাকেনা হচ্ছে। আশা করছি চাঁদরাত পর্যন্ত এ জমজমাট ভাব অব্যাহত থাকবে। ক্রেতাদের চাপ আরও বাড়বে। বিক্রেতারা ঈদের বাজার জমজমাট হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

তরুন-তরুনী, শিশু, কিশোর-কিশোরী ও নারী-পুরুষের চাহিদামত পোষাক পাওয়া যাচ্ছে এ বস্ত্রালয় গুলোতে। ফলে দূর-দূরন্ত থেকে বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে ক্রেতারা ছুটে চলছে তাদের পছন্দের পোশাক কিনতে। সমগ্র বাজারে রাস্তাঘাট ও বস্ত্রালয় কেন্দ্রগুলো ক্রেতাদের পদচারণায় যেন মুখরিত হয়ে ওঠেছে। দেখাগেছে, ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। এদিকে বিক্রেতারা জানিয়েছেন, ক্রেতাদের চাপে তারা হিমশিম খাচ্ছেন। সকাল থেকে রাত অবধি বিরাম নেই তাদের।

বিক্রেতারা আরও জানান, সিনেমায় ও সিরিয়ালে দেখা পোশাকগুলো বেশিরভাগ ক্রেতাদের নজর কেড়েছে। এবারের ঈদে বাহুবলি গ্রাউন ফ্রগ, ভারতীয় সিল্ক, লাছা, ওরগান্ডি, সাহারা, অহনা, জবা, জুটকাতান, গুজরাট থ্রিপিচ, শাড়ী, ও লেহেঙ্গা পোশাকের ব্যাপক চাহিদা। এছাড়া বাহারী ডিজাইনের পাঞ্জাবী, ট্রাওজার, জিন্সপ্যান্ট, কোটিপাঞ্জাবী, ফ্লোরটাচ, এবং আস্কার পোশাক ক্রেতাদের বেশি পছন্দ।