সাতক্ষীরায় পবিত্র ঈদ উল আযহা উদযাপন ও ঈদ পরবর্তী নিরাপত্তা সক্রান্তে বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত

64

মো: অজিজুল ইসলাম(ইমরান),সাতক্ষীরাঃ

সাতক্ষীরার ২২লাখ সাধারণ মানুষের পবিত্র ঈদ উল আযহা উদযাপন ও ঈদ পরবর্তী নিরাপত্তা সক্রান্তে বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা সবার আগে। সাধারণ মানুষের জীবন মালের নিরাপত্তা রক্ষার্থে যা যা করা দরকার পুলিশ তাই করবে।

এছাড়া পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে সাতক্ষীরায় সর্বমোট ২২ টি পশুর হাট বসবে। পশুবাহী যানবাহনে কোনো চেকিং করা হবে না। এসব হাটের গবাদিপশু যাতে নির্বিঘেœ বেচাকেনা হতে পারে সে জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। হাটে যাতে চাঁদাবাজি প্রতারণা ও জাল টাকার লেনদেন না হতে পারে সে ব্যাপারেও সতর্ক রয়েছে পুলিশ ।

আজ ১৪ই আগষ্ট মঙ্গলবার সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান তার সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন ঈদ পরবর্তীতে কোরবানির পশুর চামড়া পাচার রোধে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হবে । গবাদি পশু কেনাবেচার সময় মোটা অংকের টাকা বহনের নিরাপত্তা দিতেও প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ।

বাংলাদেশে প্রবেশ করা ভারতীয় গরু বহনে বৈধ কাগজপত্র থাকতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন চোরাচালানরোধে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। অবৈধভাবে পশু আমদানি কিংবা স্থানান্তর করার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে তিনি বলেন এ ব্যাপারে পুলিশ বিশেষভাবে সতর্ক রয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংকালে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মঈনউদ্দিন,এএসপি সার্কেল মো. ইয়াসিন আলি, এএসপি সার্কেল অপু সরোয়ার , বিশেষ শাখার পুলিশ পরিদর্শক মো. আজম খান, গোয়েন্দা পুলিশ পরিদর্শক আলি আহমেদ হাসেমী ও আট থানার ভারপ্রাপ্ত অন্যান্য কর্মকর্তাগন।