সাতক্ষীরায় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত

অনলাইন ডেস্ক: সারাদেশের ন্যায় সাতক্ষীরায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে পালিত হয়েছে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস। ”জীবনের আগে জীবিকা নয়, সড়ক দুর্ঘটনা আর নয়” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সকালে র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) সাতক্ষীরা সার্কেল। শহরের খুলনা রোড মোড় থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এস এম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ (পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার), অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবু সাঈদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ বদিউজ্জামান, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সাতক্ষীরার সহকারী পরিচালক শেখ মোঃ হাশেম আলী, মুন্সিগঞ্জ কলেজের সহকারী অধ্যাপক দীনেশ চন্দ্র মন্ডল, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও নিরাপদ সড়ক চাই সাতক্ষীরার উপদেষ্টা ডাঃ আবুল কালাম বাবলা, সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি মেডিকেল অফিসার ডাঃ জয়ন্ত সরকার, পুলিশ পরিদর্শক (ট্রাফিক ) মোঃ হারুন উর রশীদ, সাতক্ষীরা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শেখ মোবাশাশেরুর রহমান, সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তুষার কান্তি দাশ, নিরাপদ সড়ক চাই সাতক্ষীরার সভাপতি মুহাম্মদ দিদারুল ইসলাম, সাপ্তাহিক মুক্ত স্বাধীন এর সম্পাদক মোঃ আবুল কালাম, জেলা স্কাউট’র সম্পাদক মোঃ আবুল বাশার পল্টু। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাতক্ষীরা কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার মোঃ আজাহার আলী, মোঃ নুরুল আমিন ও উম্মে মুসলিমা, বিআরটিএ’র অফিস সহকারী মোঃ সাইফুল ইসলাম, সীল মেকানিক শেখ আমিনুর হোসেন ও অফিস সহায়ক মোঃ আব্দুল গাফফার।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন নিরাপদ সড়কের দাবিতে ব্যক্তিগতভাবে আন্দোলন শুরু করলেও আজ তা জাতীয় আন্দোলনে রূপ নিয়েছে। দুর্ঘটনারোধে চালকদের আন্তরিক এবং পথচারীদের সচেতন হতে হবে। গাড়ি চালানো অবস্থায় মোবাইলে কথা বলা থেকে বিরত থাকতে হবে, ক্লান্ত, অসুস্থ ও নেশাগ্রস্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো থেকে বিরত থাকুন। দুর্ঘটনাগুলোর বেশিরভাগই অসাবধানতাবশত হয়ে থাকে। এ জন্য পথচারীদের সচেতন হতে হবে, নিজেদের মধ্যে আগে পরির্বতন আনতে হবে। তাহলে দুর্ঘটনা কমবে।

বক্তরা আর ও বলেন, গাড়ি চালকদের নিয়ে আলাদাভাবে সচেতনামূলক প্রশিক্ষণ দিতে হবে। স্থানীয়ভাবে চালক হেলপার কন্ট্রাকটারদের স্ব স্ব শ্রমিক ইউনিয়ন ও সংশ্লিষ্ট মালিক সমিতি মাসে অন্তত একবার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নিতে হবে। পাশাপাশি বিভিন্ন স্কুল কলেজে ছাত্র-ছাত্রীদের সড়ক দুর্ঘটনা রোধকল্পে সচেতনতামূলক ক্যাম্পইন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে তাহলে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে আরও বেশি কার্যকর হবে বলেও মন্তব্য করেন তারা। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিআরটিএ সাতক্ষীরা সার্কেলের মোটরযান পরিদর্শক মোঃ নাসিরুল আরিফিন।

error: লাল সবুজের কথা !!