সর্বশেষ সংবাদ

সাতক্ষীরায় টানা গাড়ি চালানোর দিন শেষ : পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম (বার) বলেছেন সাতক্ষীরা জেলায় ভারত থেকে অবৈধ পথে আসা কোন মোটরসাইকেল রাস্তায় চলতে দেয়া হবে না।যারা টানা মটর সাইকেলের ব্যবসা করেন তাদের তথ্য দিয়ে পুলিশ কে সহযোগিতা করুন। গুটি কয়েক টানা গাড়ির ব্যবসায়ীদের দোষ সকল সেকেন্ডহ্যান্ড গাড়ির শো রুম কে দেওয়া যাবেনা।টানা গাড়ি চালানোর দিন শেষ। সোমবার সকালে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ লাইন্সের সম্মেলন কক্ষে পুরাতন মোটরসাইকেল বিক্রেতা শো রুম মালিকদের সাথে মতবিনিময় কালে পুলিশ সুপার এসব কথা বলেন।

পুলিশ সুপার আরো বলেন,আপনারা অন টেষ্ট গাড়ি কিনে বিক্রি করবেন না তাহলে তেমন সমস্যা হবেনা। রেজিষ্ট্রেশন করা গাড়ি কিনলে সাথে সাথে বিাআরটিএর ওয়েবসাইটে অনলাইনে সার্স করে গাড়ির পেপার্স আসল কি নকল সেটা যাচাই করা যাবে।কিন্তু অনটেষ্ট মটরসাইকেল কিনলে তার মেমো যদি ঢাকর হয়, তার মেমো যদি রাজশাহীর হয় তাহলে ট্রাফিক সার্জেন্টের মনে অনেক রকম প্রশ্ন জাগতে পারে।তারা মনে করতে পারেন সাতক্ষীরার মানুষ গাড়ি কিনবে রাজশাহী থেকেে কেনো?

সাতক্ষীরার মানুষ গাড়ি কিনবে সাতক্ষীরা, নাইতো খুলনা নাইতো যশোর নাইতো চুকনগর থেকে।পুলিশ সুপার আরো বলেন সেকেন্ডহ্যান্ড গাড়ি ক্রয় বিক্রয়ের সময় গাড়ির সকল কাগজ পত্র বিআরটিএ থেকে চেক করে তারপর কেনা বেঁচা করতে হবে।এসময় শো রুম মালিক সমিতির সভাপতি ভানু ও সাধারণ সম্পাদক লিটন তাদের বিভিন্ন সমস্যা সমূহ পুলিশ সুপারের নিকট তুলো ধরেন।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম (বার)।এসময় জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও পদন্নোতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ,বিশেষ শাখার ডিআইওয়ান মিজানুর রহমান, জেলা ট্রাফিক পুলিশের ইনচার্জ চার্লি ওয়ান মোঃকামরুল ইসলাম,চার্লি টু মোমিন হোসেন, ট্রাফিক সার্জেন্ট শরিফুল ইসলাম, ট্রাফিক সার্জেন্ট অনিমেষ,পুরাতন গাড়ির শো রুম মালিক সমিতির সভাপতি ভানু, সাধারন সম্পাদক লিটন,নান্নু,সনজিত সাধু, মিলন সহ সকল ব্যবসায়ীরা মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।

error: লাল সবুজের কথা !!