সাতক্ষীরার সাংবাদিক জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র আবুল কালাম আজাদ

মো. জাবের হোসেন : সাতক্ষীরা সাংবাদিক জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র আবুল কালাম আজাদ। তার বিরুদ্ধে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপত্তিকর মন্তব্য করছে কিছু অসাধু ব্যক্তি ও কুচক্রী মহল।

আজ আপনাদের জানবো আবুল কালাম আজাদের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক,সামাজিক ও সাংবাদিক জীবনের সকল দিক।

সাংবাদিক জগতের দিকপাল সাতক্ষীরার বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে বিভিন্ন ভূমিকা রেখেছেন আবুল কালাম আজাদ।কিন্তু তাকে নিয়ে আজ ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

আবুল কালাম আজাদ যিনি আশির দশকের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত এই সাতক্ষীরায় মহান মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে যতগুলি আন্দোলন সংগ্রাম হয়েছে তার প্রায় প্রত্যেকটিতে আপোষহীন নেতৃত্ব দিয়ে জনগণকে মুক্তির মিছিলে সংগঠিত করেছেন।

যিনি বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর মাধ্যমে রাজনীতিতে প্রবেশ করে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গণমুক্তির আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন করেছিলেন। সাতক্ষীরার ভূমিহীন আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা আবুল কালাম আজাদ

আবুল কালাম আজাদ যিনি সাতক্ষীরার জলাবদ্ধতা নিরসনে আজও আপোষহীন নেতৃত্ব দিয়ে লক্ষ লক্ষ কৃষকের মধ্যে আশার আলো জ্বালিয়ে রেখেছেন।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। ২০১৩ সালে সাতক্ষীরায় গণজাগরণ মঞ্চের নেতৃত্ব দিয়ে স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজপথ থেকে হঠিয়েছিলেন। সাতক্ষীরার প্রত্যেকটি ন্যায়ভিত্তিক আন্দোলনে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠায় নিরন্তর সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন আবুল কালাম আজাদ।

সাতক্ষীরার উন্নয়ন ও অগ্রগতিকে এগিয়ে নিতে এবং শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠায় বলিষ্ঠ নেতৃত্ব দিয়ে বুনে যাচ্ছেন স্বপ্নের বীজ।যিনি নির্যাতিত -নিপীড়িত মানুষের আশা ভরসার প্রতীক।আবুল কালাম আজাদ যিনি ভূমিহীন নেত্রী জায়েদা, সাতক্ষীরার ভোমরা বন্দরের প্রতিষ্ঠাতা স.ম আলাউদ্দিন, সাংবাদিক চঞ্চল সিংহ, কৃষক নেতা সাইফুল্লাহ লস্কর হত্যার বিচারের দাবিতে আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

কিন্তু আজ সাতক্ষীরাকে দুর্নীতি মুক্ত করতে যেয়ে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আপনারা ভূমিদস্যু, গডফাদার ও চোরাচালীদের মুখোশ খুলে তুলে ধরেন সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদে।

সুতরাং সাতক্ষীরার উন্নয়নে ২২ লক্ষ মানুষের আশা-আকাঙ্খার বাতিঘর সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের স্বার্থ ও মর্যাদা রক্ষায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানাই সবাইকে।

error: লাল সবুজের কথা !!