সাতক্ষীরার তরুণ লেখক আবদুর রহিমের জীবনগল্প “অমৃতপল্লী”র আত্মপ্রকাশ

51
সাতক্ষীরার তরুণ লেখক গাজী আবদুর রহিমের জীবনগল্প
সাতক্ষীরার তরুণ লেখক গাজী আবদুর রহিমের জীবনগল্প "অমৃতপল্লী"র প্রচ্ছদ।- লাল সুবজের কথা।

নিজস্ব প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার তরুণ লেখক গাজী আবদুর রহিম লিখেছেন গল্পের বই “অমৃতপল্লী”।
ঢাকার রমনায় ২১ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে বই মেলায় লিটল ম্যাগ চত্বর, কালের ধ্বনি স্টলে তরুণ লেখক গাজী আবদুর রহিমের জীবনগল্প “অমৃতপল্লী” বইটি আজ ২৫ ফেব্রুয়ারি বের হচ্ছে।

গাজী আবদুর রহিম কিশোর বয়স থেকেই লেখেন গল্প, কবিতা ও কলাম। তার লেখা প্রকাশিত হয়েছে দেশের প্রথম সারির জাতীয় দৈনিকে। বর্তমানে তিনি ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে বিএসসি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ অধ্যায়নরত। তার জন্ম ২০০০ সালে সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জে। ইঞ্জিনিয়ারিং-এ পড়া-লেখার পাশাপাশি তিনি নিয়মিত লেখা-লিখির সাথে যুক্ত রেখেছেন।

“অমৃতপল্লী” বইতে পাঠক গ্রাম বাংলার মানুষের জীবনধারণের অপরূপ চিত্রকল্প দেখতে পাওয়া যাবে। বাস্তবভিত্তিক গল্পগুলো গ্রামের মানুষের সমস্যা, টানা-পোড়নের নিদারুণ নিদর্শন আছে। এছাড়া বইটিতে আছে গ্রামের প্রকৃতির সুন্দর বর্ণনা। যারা গ্রামকে অকৃত্রিম ভালোবাসে তাদের জন্য বইটি পাঠ আনন্দের হবে।

 একজন কৃষকের মেয়েকে শ্বশুর বাড়ির লোকেরা হত্যা করে। মৃত্যুর প্রমাণ পাওয়া গেলে ক্ষমতার আড়ালে ডুবে যায় অপরাধ। থানায় যেয়ে হয়রানি হয় মেয়েহারা পিতা। 

অন্য গল্পে পিতৃহারা মামুন নামের এক কিশোর গ্রাম থেকে শহরে যায় চাকরির জন্য। চাকরিও হয় সুইপারের। কিন্তু সমস্যা হলো মালিকের সাথে তার নামের মিল থাকায় নাম পরিবর্তন করে দেয় অফিস কর্তৃপক্ষ। মামুনের খারাপ লাগে এজন্য যে নামটা তার বাবা রেখেছিল। তিনি আজ পৃথিবীতে নেই।

বইটির মূল্য নির্ধারণ হয়েছে ১৫০ টাকা। কুরিয়ারের মাধ্যমে দেশের যে কোনো প্রান্তে বিনামূল্যে পাঠকের হাতে পৌঁছানোর সুযোগ রেখেছেন কর্তৃপক্ষ। বইটির প্রকাশনী দুয়ারী প্রকাশনী, প্রচ্ছদ আর.করিম। ০১৫১৭৮৪৫৭৮৫ নাম্বারে সরাসরি মোবাইলে কথা বলা যাবে প্রকাশকের সাথে।