সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবেঃ শাহিন চাকলাদার

23
সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবেঃ শাহিন চাকলাদার

আজিজুর রহমান, কেশবপুর থেকে: যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন চাকলাদার বলেছেন, ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত দেশ হিসাবে দেখতে হলে আওয়ামীলীগকে পুনরায় ক্ষমতায় আনতে হবে। কোন অপশক্তি আওয়ামীলীগের বিজয় রোধ করতে পারবে না। নৌকাকে বিজয়ী করতে সকলে এখন ঐক্যবদ্ধ। আগামী ৩০ ডিসেম্বর হবে আওয়ামীলীগের দিন। ওইদিন সকল নেতা কর্মীকে ভোটারদের সাথে নিয়ে সকাল সকাল কেন্দ্রে আসতে হবে। নির্বাচনের ফলাফল না নিয়ে কেন্দ্র ত্যাগ করা যাবে না। বিএনপি সরকার থাকাকালীন দেশে উন্নয়ন না করে লুটপাট করেছে।

২০১৪ সালে ১০ম সংসদ নির্বাচনে জামায়াত-বিএনপির নেতাকর্মীরা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদেরকে ভোট কেন্দ্রে না আসার জন্য হুমকি দিয়েছিল। তাছাড়া রাস্তাঘাটে কাঠের গুড়ি ফেলেসহ টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে রাস্তা অবরোধ করেছিল। এবার নির্বাচনেও তারা এমনটা করতে পারে তাই বিএনপিকে বিশ্বাস করা যায় না। তারা যেকোন সময় ভোটকেন্দ্রে যেয়ে ভোট ডাকাতি করতে পারে। সেজন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। এবং সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে। যশোর-৬ কেশবপুর আসনে আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেকের বিজয় সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে সোমবার বিকালে সাঁগরদাড়ি ইউনিয়নে মধুমঞ্চে নৌকার নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথি হিসাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সাঁগরদাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী মুস্তাফিজুর রহমান মুক্তর সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গৌতম কুমার রায়ের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক, যশোর জেলা মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী নূরজাহান ইসলাম মীরা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এসএম রুহুল আমীন, উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি তপন কুমার ঘোষ মন্টু, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল,

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ, সাবেক চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও পৌর প্যানেল মেয়র বিএম বিশ্বাস শহিদুজ্জামান শহিদ, যুগ্ন আহ্বায়ক আবু সাইদ লাভলু, যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রওশন ইকবাল শাহী, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী আজহারুল ইসলাম মানিক, যুগ্ন আহ্বায়ক জাকির হোসেন মুন্না, সাগরদাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা ইকবাল হোসেন প্রমুখ। নির্বাচনী জনসভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি একেএম খয়রাত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর জহুরুল ইসলাম, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম, উপ-প্রচার সম্পাদক জিয়ারুল হাসান হ্যাপি, আওয়ামীলীগ নেতা এ্যাড আসাদুর জামান, জেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা শেখ রোকেয়া পারভিন ডলি, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহারুল ইসলাম, জেলা কৃষকলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল মতলেব বাবু, শ্রমিকলীগের সহ-সভাপতি জবেদ আলী, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বাবু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি নিয়ামত মোল্যা,

এমএম কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তহিদুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট হোসাইন মোহাম্মদ ইসলাম, জেলা পরিষদের সদস্য হাসান সাদেক, সোহরাব হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ রানা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা সাদেক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও যশোর কোর্টের পিপি এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম পিটু, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর এবাদত সিদ্দিকী বিপুল, ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন, হাবিবুর রহমান হাবিব, শামছুদ্দিন দফাদার, আমজেদ হোসেন, শফিকুল ইসলাম মুকুল, পৌর আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক আব্দুস সোবহান পেশকার, যুগ্ন আহ্বায়ক এ্যাডভোকেট মিলন মিত্র, এ্যাডভোকেট আবু বকর সিদ্দিক, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী রাবেয়া ইকবাল, সাধারণ সম্পাদক মমতাজ বেগম, পৌর মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফতেমা বেগম,

পৌর কাউন্সিলর মফিজুর রহমান খাঁন মফিজ, জামালউদ্দীন, মহিলা কাউন্সিলর মনিরা খানম, মেহেরুন্নেছা মেরী, মহিলা ইউপি সদস্য রেহেনা বেগম, সাগরিকা রত্না, জুলি বেগম, ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম, কামাল হোসেন, ওলিয়ার রহমান, সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আফছার উদ্দীন গাজী, সাধারণ সম্পাদক কবীর হোসেন, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি সৈয়দ নাহিদ হাসান, সাধারণ সম্পাদক রমেশ দত্ত, পৌর কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুল গফুর, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাক, সেলিম খান, জাহাঙ্গীর হোসেন, আজিজুর রহমান স্বপন, আবুল বাশার খান, মশিয়ার রহমান, নজরুল ইসলাম, সাবেক যুবলীগ নেতা শাহাদাত হোসেন, ইকবাল হোসেন, কাজী মুজাহিদুল ইসলাম পান্না, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক জাকির হোসেন মুন্না, পলাশ মল্লিক, ইসমাত আরা সাদেকের মেয়ে নৌরীণ সাদেক, ছেলে তানভির সাদেক, ছাত্রলীগ নেতা আবু শাহিন, সবুজ হোসেন নীরবসহ আওয়ামীলীগের অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।