রোহিঙ্গা গণহত্যাসুচির সম্মানসূচক নাগরিকত্ব বাতিল করলো কানাডা

33

শান্তিতে নোবলে বিজয়ী ও মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচির সম্মানসূচক নাগরিকত্ব বাতিল করে দিয়েছে কানাডার সংসদ। দেশটির আইনপ্রণেতাদের সর্বসম্মত ভোটে এটি বাতিল করা হয়। মিয়ানমারের সংখ্যালঘু মুসলমানদের বিরুদ্ধে গণহত্যাসহ অপরাধ তৎপরতার দায়ে সুচির সম্মানসূচক নাগরিকত্ব বাতিল করা হয়েছে।

কানাডার বিরোধী দল ব্লক কুইবেকয়েজ প্রথম এ সংক্রান্ত প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা দেশটির সংসদের নিম্নকক্ষ হাউজ অব কমনস সবার সমর্থন লাভ করে। ২০০৭ সালে সুচিকে কানাডার সম্মানসূচক নাগরিকত্ব দেয়া হয়েছিল।

এর আগে, চলতি মাসের শুরুর দিকে মিয়ানমারের রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর নির্মম হত্যা-নির্যাতনকে সর্বসম্মতভাবে গণহত্যা হিসেবে ঘোষণা করেছেন কানাডার আইনপ্রণেতারা। রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অপরাধকে গণহত্যা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে তারা একটি প্রস্তাবও পাস করেছেন। এর মধ্যদিয়ে মিয়ানমারে জাতিসংঘের ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশনের তথ্য-উপাত্তকে অনুমোদন দেয় হাউস অব কমনস।

কানাডার আইনপ্রণেতারা বলেছিলেন, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে, তা গণহত্যা। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে এ গণহত্যার বিচার করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে তারা আহ্বান জানান।