মোবাইলে নগ্ন ছবি ধারণ করায় কলারোয়ার দুই প্রতারক আটক

42
লাল সবুজের কথা- Lal Sobujer Kotha

জুলফিকার আলী,কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি : ইউএনডিপি সংস্থায় চাকরি দেওয়ার নাম করে কলোরোয়া বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজের ৪ শিক্ষার্থীর নগ্ন ছবি জোরপূর্বক মোবাইলে ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ইন্টারনেট) ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগে দুই প্রতারক চক্রের সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে সাতক্ষীরার মুন্সিগঞ্জ বন অফিসের পাশ থেকে শ্যামনগর থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক রাজ কুমার পাল সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাদের আটক করে। আটককৃতরা হলো- কলারোয়া থানার হিজলদি গ্রামে মৃত হারেজ উদ্দীন মোল্যার ছেলে রফিকুল ইসলাম মোল্যা এবং একই এলাকার নজরুল ইসলাম গাইনের মেয়ে শ্যামলী খাতুন।

এ ঘটনায় এক শিক্ষার্থী শ্যামনগর থানায় পর্ণোগ্রাফি আইনে ৩০(২)১৯ নং মামলা হয়েছে। মামলার সূত্র মতে, রফিকুল ইসলাম নিজেকে ইউএনডিপি সংস্থার কর্মকর্তা পরিচয় দেয়। ওই সংস্থায় মোটা অংকের চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজের ৪ শিক্ষার্থীকে শ্যামলির মাধ্যমে ম্যানেজ করে।

পরবর্তীতে গত বুধবার সংস্থায় ট্রেনিং-এর নাম করে শ্যামনগর থানাধীন সুশীলন রিসোর্ট সেন্টারে নিয়ে আসে। ওই দিন সন্ধ্যা ৬ টার দিকে প্রতারক রফিকুল ওই ৪ শিক্ষার্থীকে রিসোর্ট সেন্টারে ৩০৩ নং কক্ষে আটকে রেখে জোর পূর্বক নগ্ন ছবি মোবাইলে ধারণ করে এবং ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখায়। ঘটনাটি ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থী কৌশলে শ্যামনগর থানাকে অবহিত করে। পুলিশ রফিকুলের কাছ থেকে নগ্ন ছবিসহ একটি আইফোন জব্দ করে। শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ হাবিল হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।