সর্বশেষ সংবাদ

মণিরামপুরে ছেলে বৌমার দায়ের কোপে মা ভাই ভাবীসহ ৩ জন রক্তাক্ত জখম

আজিজুর রহমান: মণিরামপুরে চলাচলের রাস্তাকে কেন্দ্র করে ছেলে বৌমার দায়ের কোপে মা ভাই ভাবীসহ ৩ জন রক্তাক্ত জখম হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই ৩ জনকে উদ্ধার করে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, মণিরামপুর উপজেলার সিং খাজরো গ্রামের মৃত করিম মোড়লের ছেলে ইজ্জত আলী মোড়লের সাথে তার আপন ছোটো ভাই আব্দুল ছাত্তার মোড়লের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জমি জায়গা ও চলাচলের রাস্তা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

এরই জের ধরে শনিবার সকাল ১০ টার দিকে আচমকাভাবে ছাত্তার মোড়ল, তার স্ত্রী রীনা বেগম মিলে দেশী দাঁ, লোহার রড ও বাশের লাঠি হাতে নিয়ে ইজ্জত আলী মোড়লের বসতবাড়িতে যেয়ে তাদের উপরে হামলা চালায়। হামলায় রক্তাক্ত জখম হয় ইজ্জত আলী মোড়ল (৩৭), তার স্ত্রী ফুলজান বেগম (২৭), তার মা ফতেমা বেগম (৬০)।

ইজ্জত আলী মোড়ল সাংবাদিকদের জানান, গত ১ বছর আগে আমার ছোটো ভাই ছাত্তার মোড়ল ও তার স্ত্রী মিলে আমার পরিবারকে বেদম মারপিঠ করাসহ বসতবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছিলো। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মণিরামপুর থানায় লিখিত অভিযোগের প্রস্তুতি চলছিল বলে আহত ইজ্জত আলী মোড়ল জানান।

এ ব্যাপারে ছাত্তার মোড়লের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, মা ভাই ভাবিকে আমরা মারপিঠ করিনি। তাদের হামলায় আমি ও আমার স্ত্রী আহত হয়েছি। আমার স্ত্রী বর্তমান যশোর সদর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

error: লাল সবুজের কথা !!