বোমা মেরে বিএনপি নেতাকে হত্যা

17
বোমা মেরে বিএনপি নেতাকে হত্যা

বাগেরহাটের রামপালে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান খাজা মঈনুদ্দীন আক্তারকে বোমা মেরে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় বোমার আঘাতে তার ছোট ভাই বাবলা (২৬) আহত হন। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

বিএনপি নেতা খাজা মঈন উদ্দিন আক্তার উজলকুড় ইউনিয়নের ভরসাপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকার একটি দোকানে বসে চা পান করছিলেন। এ সময় অজ্ঞাত কয়েকজন সন্ত্রাসী এসে তাকে লক্ষ করে বোমা নিক্ষোপ করে দ্রুত পালিয়ে যায়।

সন্ত্রাসীদের ছোড়া বোমা বিকট শব্দে বিষ্ফোরিত হয় এবং চারিদিকে ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। পরে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত এই নেতাকে উদ্ধার করে দ্রুত খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জনপ্রিয় এ বিএনপি নেতা ৩ বার উজলকুড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ লুৎফর রহমান বলেন, দুর্বৃত্তদের বোমা হামলায় বিএনপি নেতা ও উজলকুড় ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান খাজা মঈন উদ্দিন আক্তর নিহত হয়েছেন। তিনি রামপালের উজলকুড় ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও মৃত শেখ সোবাহান আলীর ছেলে।

তার বাড়ি উজলকুড়ের বামনদহর গ্রামে। নিহতের স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

এ ছাড়া তিনি উজলকুড় ইউনিয়নের ৩ বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন। এর আগেও তার উপর একাধিকবার সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে।

এদিকে এ ঘটনাকে ঘিরে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে । তবে, এলাকার পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।