সর্বশেষ সংবাদ

‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ একটু পরেই উদ্বোধন

মোঃ মামুন হোসেন : যশোর জেলার বেনাপোলবাসীর দীর্ঘদিনের আশা-আকাঙ্খা পূরণ হতে যাচ্ছে। আজ উদ্বোধন হতে যাচ্ছে বেনাপোল-ঢাকা রুটের নতুন ট্রেন ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’। বেনাপোল থেকে ছেড়ে যশোর, ঈশ্বরদী হয়ে ঢাকায় যাতায়াত করবে দ্রুতগামী ট্রেনটি।আজ সকাল সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঢাকা থেকে এ ট্রেন সার্ভিসের উদ্বোধন করবেন বলে রেলপথ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানানো হয়েছে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্স এ রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংযুক্ত থাকবেন। এর আগে গত ৩ জুলাই রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন ও ১৩ জুলাই রেলওয়ের মহাপরিচালক শামছুজ্জামান যশোর ও বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

বেনাপোল-ঢাকা রুটে বেনাপোল থেকে সোয়া ১টায় ট্রেনটি ছেড়ে যশোর রেলওয়ে জংশনে পৌঁছে ১৫ মিনিটের বিরতি করবে। এ সময়ের মধ্যে যাত্রী ওঠানো ও রেলের ইঞ্জিন ঢাকামুখী ঘোরানো হবে। এরপর ঈশ্বরদী গিয়ে ট্রেনের চালকসহ অপারেশনাল কর্মী বদলের জন্য আরো ১৫ মিনিটের বিরতি থাকবে। পরে ট্রেনটি ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে শেষ গন্তব্যে ছেড়ে যাবে। রাত ১২.৪০ মিনিটে ছেড়ে বেনাপোল পৌঁছবে পরদিন সকাল ৮টায়। ট্রেনটিতে ১২টি বগি থাকবে। দুটি এসি চেয়ার, একটি কেবিন ও বাকি নয়টি থাকবে চেয়ার কোচ। বর্তমানে বগি সংখ্যা ১৬টি। অতিরিক্ত ৪টি বগি পার্বতিপুর যেয়ে আলাদা করা হবে বলে জানা যায়।

ট্রেনটিতে মোট আসন সংখ্যা হবে ৮৯৬। সপ্তাহে ৬ দিন নন স্টপ এ ট্রেনটি বেনাপোল-ঢাকা চলাচল করবে। ভাড়ার তালিকা অনুযায়ী শোভন চেয়ার ৫৬৪ টাকা, এসি চেয়ার ১০১৩ টাকা এসি-সীট ১২১৩ টাকা, এসি স্লিপার-১৮৬৯ নির্ধারণ করা হয়েছে। আসছে কোরবানির ঈদযাত্রায় নিঃসন্দেহে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ এই ট্রেনে চলাচলের সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

error: লাল সবুজের কথা !!