সর্বশেষ সংবাদ

বিশ্বকাপে বাদ পড়াদের এখনও দলে ফেরার সুযোগ আছে: পাপন

বিশ্বকাপ দলে সুযোগ না পেয়ে প্রকাশ্যে হতাশা প্রকাশ করে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন তাসকিন আহমেদ। তাসকিনের মতো আবেগি না হলেও বিশ্বকাপ দলে সুযোগ না পাওয়ার হতাশা আছে ইমরুল কায়েস ও এনামুল হক বিজয়ের মতো বেশ কিছু ক্রিকেটারের।

তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলছেন, বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়ার এখনও সুযোগ আছে। দলে সুযোগ না পেয়ে যাদের মধ্যে হতাশা আছে তারা যদি ধারাবাহিক পারফর্ম করতে পারে তাহলে তাদের সুযোগ করে দেয়া হবে।

গতকাল মঙ্গলবার বিশ্বকাপ ‍উপলক্ষে ১৫ সদাস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করে বিসিবি। আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ডে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপ দলে জায়গা হয়নি অভিজ্ঞ ওপেনার ইমরুল কায়েস ও পেসার তাসকিন আহমেদের।

আগের দুটি বিশ্বকাপ এবং সবশেষ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলা ইমরুল কায়েসের বাদপড়া নিয়ে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেছেন, ‘যেহেতু ওপেনিংয়ে তামিমের জায়গা পাকা। তাই তার সঙ্গী হিসেবে একজন ডানহাতিকেই নিতে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট।’

প্রধান নির্বাচক আরও বলেন, ‘যেহেতু ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ হচ্ছে, তাই আমরা অভিজ্ঞতাটাকে একটু বেশি মুল্যায়ন করেছি। এখানের কন্ডিশনটাও আমাদের এখানকার থেকে আলাদা। এক বছর আগে আমরা সেখানে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলে এসেছিলাম। তো সেই অভিজ্ঞতার কথা বিবেচনা করে আমাদের স্কোয়াড সাজানো হয়েছে।’

তাসকিন আহমেদের বাদ পড়া নিয়ে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘আমরা চাচ্ছিলাম তাসকিনকে স্কিলের দিক দিয়ে পুরোপুরি ফিট হিসেবে। ঘরোয়া ক্রিকেটে সে একটা ম্যাচ খেলেছে। তবুও তার ফিটনেস সন্তোষজনক নয়।’

নান্নু আরও বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাসকিনের একটা দীর্ঘ বিরতি পড়ে গেছে। ওকে যখন নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য চিন্তা করলাম, তখন (বিপিএলে) আবার চোটে পড়ে। আমাদের কাছে ফিজিওর যে রিপোর্টগুলো আছে তাতে স্পষ্ট সে এখনো পুরোপুরি ফিট না।

বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে (বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আয়ারল্যান্ড) একটা ত্রিদেশীয় সিরিজ হবে। সেখানে যদি কেউ চোটাক্রান্ত হয় তাহলে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ হতে পারে তাসকিনের।

এমনটি জানিয়ে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘আয়ারল্যান্ড সফরে যদি কেউ চোটে পড়ে তাহলে বিকল্প হিসেবে তাসকিনকে ডাকা হবে।’

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল

মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, রুবেল হোসেন ও আবু জায়েদ রাহী।

সূত্র: যমুনা টিভি

error: লাল সবুজের কথা !!