বিমান বিধ্বস্তে নিহতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেবে কানাডা

9

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, ইরানে ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত কানাডীয় নাগরিক ও স্থায়ী বাসিন্দাদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেবে তার সরকার। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে ক্ষতিপূরণ দেয়ার এই ঘোষণা দেন ট্রুডো।

ট্রুডো বলেন, এটা একটি অন্তর্বর্তীকালীন পদক্ষেপ এবং ভুক্তভোগীদের পরিবারগুলোকে ইরানের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ ক্ষতিপূরণ আদায়ে সহায়তা করবে কানাডা। তিনি বলেন, এই ঘটনার পুরো দায় ইরানের।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই: আমরা আশা করছি এসব পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেবে ইরান। তিনি বলেন, কিন্তু আমি তাদের (ভুক্তভোগীদের পরিবার) সঙ্গে দেখা করেছি, তার সপ্তাহের পর সপ্তাহ অপেক্ষা করতে পারবে না। তাদের এখনই সহায়তা দরকার।

নিহত ব্যক্তিদের শেষকৃত্যানুষ্ঠান ও ভ্রমণ বাবদ প্রতি পরিবারকে ২৫ হাজার কানাডীয় ডলার দেবে দেশটির সরকার। ট্রুডো বলেন, নিহতদের মধ্যে ৫৭ জন কানাডার নাগরিক এবং আরও ২৯ জন দেশটির স্থায়ী বাসিন্দা ছিলেন।

ইরানের সঙ্গে কানাডার সরাসরি কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই, বরং তেহরানের সঙ্গে ইতালির মাধ্যমে যোগাযোগ রক্ষা করে অটোয়া। এদিকে ইরানে বিধ্বস্ত হওয়া বিমানটির বিষয়ে তদন্তে অংশ নিয়েছে কানাডার পরিবহন নিরাপত্তা বোর্ডের সদস্যরা।

উল্লেখ্য, গত ৮ জানুয়ারি তেহরান বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পর ১৭৬ জন আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত হয় ইউক্রেনের একটি বিমান। মার্কিন হামলা ইরানের কুদস বাহিনীর প্রধান লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত হওয়ার পর সৃষ্ট উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে ইরানে ছোড়া মিসাইলে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। যদিও প্রথম কয়েকদিন বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় নিজেদের দায় অস্বীকার করে ইরান। পরে তারা জানায় ‘ভুলবশত’ বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।