প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে ফায়দা লুটছে ফারুক মাস্টার অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন

31
লাল সবুজের কথা
স্টাফ রিপোর্টারঃ সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা ধানদিয়ার কাশিনাথ সাহার ফারুক মাস্টারের বিরুদ্ধে নানান অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে উক্ত সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে কাশিনাথ সাহা ধানদিয়ার সারসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ফারুক হোসেন, পিতা: মৃত গফুর সানা এর বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ তুলে ধরে বলেন, ফারুক হোসেন’র দাপটে ও মিথ্যা খুটির জোর দেখিয়ে অশোক মোড় নামক বাজারে ত্রাস, আতংক সৃষ্টির মাধ্যমে নিরীহ মানুষ বিশেষ করে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের উপর অন্যায়, অত্যাচার, মিথ্যা মামলা, ভয়ভীতি দেখাইয়া চাদাবাজি করে অবৈধ অর্থের পাহাড় জমিয়েছেন।
একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হয়ে তিনি অজপাড়া গায়ে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত বাড়িতে বসবাস ও প্রাইভেট কারে যাতায়াত করেন।
তিনি বলেন, ফারুক হোসেন ধানদিয়া মিঠুন সাহার নিকট হইতে পল্লী বিদ্যুতের মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে ২০,০০০ টাকা নেন। পরবর্তীতে জানাজানি হলে সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক সন্তোষ কুমারের মধ্যস্থতায় উক্ত টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হন। একই গ্রামের সুধীর সাহার পুত্র গোকুল সাহার নিকট থেকে মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে ১,২০,০০০ টাকা নেন। ফারুক তাঁর নিজ মামা কাদেরের কন্যা রেহেনার নিকট থেকে ৩০,০০০ টাকা চাদা দাবি করেন। রেহেনা টাকা দিতে না চাইলে তাকে এ বিএল (জাগরণী চক্র) এনায়েত পুর শাখার স্কুল থেকে বিতাড়িত করার হুমকি দেন এবং পরবর্তীতে তাকে চাকুরিচ্যুত করে ক্ষান্ত হন।
এছাড়াও ফারুক হোসেন থানা পুলিশ কে ম্যানেজ করে ধানদিয়ার অশোক মোড়সহ এলাকার নিরীহ লোকজনকে পুলিশে ধরিয়ে দিয়ে আবার তাদেরকে ছাড়িয়ে এনে অর্থ উপার্জন করে চলেছে। কাশিনাথ সাহা আরো বলেন, তদন্ত করলে ফারুক হোসেনের কুকীর্তির আরো অনেক তথ্য প্রমানিত হবে। সবশেষে তিনি এলাকার নিরীহ লোকজন তথা হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাসের লক্ষ্যে উক্ত ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উক্ত ৪ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য রমেশ সাহা, এবং কাশিনাথ সাহার দুই পুত্র দেবাশীষ ও মিহির প্রমুখ।