সর্বশেষ সংবাদ

পাবিপ্রবি বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পাবিপ্রবি) সোমবার সাধারণ ছাত্রদের ব্যানারে ৬ দফা দাবিতে শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন ও বিক্ষোভের জেরে বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় রিজেন্ট বোর্ডের সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের এই ঘোষণা দেয়া হয়। একই সঙ্গে আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টায় ছাত্রদের এবং সকাল ১১টার মধ্যে ছাত্রীদের হলত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এদিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, সাধারণ ছাত্রদের ব্যানারে শিক্ষার্থীরা ৬ দফা দাবিতে সোমবার দুপুর ১টার দিকে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে। তারা প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে। এ সময় তারা ক্যাম্পাসের প্রবেশের মূল ফটক ও প্রশাসনিক ভবন বন্ধ করে দেয়।

আন্দোলনকারীরা দুপুর আড়াইটার দিকে ভিসিকে দ্বিতীয় দফায় তার বাসভবনে অবরুদ্ধ করে রাখে। এ ঘটনায় পুরো ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পাবনা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

পাবনা সদর ওসি ওবায়দুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের বিষয়টি প্রশাসন আমাদের অবহিত করলে আমরা সেখানে এসআই মনিরের নেতৃত্বে একটি দল পাঠাই এবং তারপরই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন রিজেন্ট বোর্ডের জরুরি সভা আহ্বান করেছেন।

এনিয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা বলেন প্রক্টর প্রীতম কুমার দাস জানান। শিক্ষার্থীরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে আমরা বিশ্ববিদ্যাল প্রশাসনের কাছে ৬ দফা দাবি করে আসছি। কর্তৃপক্ষ দাবি মেনে নেবেন বলে আশ্বাসও দেন। কিন্ত ৩-৪ মাস অতিবাহিত হলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোনো কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণ করে নাই।

শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের দাবিগুলো হলো, এয়ারড্রপ পদ্ধতি বাতিল, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষসহ পরবর্তী সব ব্যাচসমূহের অর্ডিন্যান্সের আওতাভুক্ত করা, হলের ডাইনিংয়ের খাবার উন্নয়নের জন্য ভর্তুকি প্রদান, ক্লাসরুম ও চেয়ার সংকট দূর করা, পরিবহন সংকট দূর করা, ক্যাম্পাসে ওয়াইফাইয়ের ব্যবস্থা করা এবং শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা।

পাবিপ্রবির প্রক্টর প্যীতম কুমার দাস বলেন, সাধারণ ছাত্রদের ব্যানারে যেসব দাবি করা হয়েছে সেগুলোর অনেকগুলোই ইতিমধ্যে পূরণ করা হয়েছে এবং অন্যগুলো বাস্তবায়ন চলমান রয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও তারা কোনো মহলের উসকানিতে এটা করতে পারে বলে আমরা মনে করছি।

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. রোস্তম আলীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় রিজেন্ট বোর্ডের জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। একই সঙ্গে মঙ্গলবার সকাল ৯টায় ছাত্রদের এবং সকাল ১১টার মধ্যে ছাত্রীদের হলত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আগামী ১৬ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা যথারীতি অনুষ্ঠিত হবে।

error: লাল সবুজের কথা !!