সর্বশেষ সংবাদ

দেবহাটায় কিশোরী স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ৪শ ছাত্রীর মাঝে স্যানিটারী ন্যাপকিন বিতরণ

কে এম রেজাউল করিম, দেবহাটা ব্যুরো : কিশোরী স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ও নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতা সৃষ্টির লক্ষ্যে স্যানিটারী টাওয়েল প্রস্তুতকরণ ও বিতরণ কর্মসূচির আওতায় দেবহাটায় স্যানিটারী ন্যাপকিন বিতরণ করা হয়েছে।

বুধবার(২০ নভেম্বর) সাতক্ষীরা জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকের কার্যালয়ের সহযোগীতায় দেবহাটা উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে উক্ত অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পারুলিয়া ও দেবীশহর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে আলোচনা সভা ও ন্যাপকিন বিতরন অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ফরিদা ইয়াসমিন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের প্রোগ্রাম অফিসার ফতেমা জোহরার, দেবহাটা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও নওয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবর রহমান, পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার নাসরিন জাহান, পারুলিয়া মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একেএম মোরর্শেদ আলী, দেবীশহর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অনিমা সিংহ, উপজেলা পুজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি সুভাষ ঘোষ প্রমুখ। এসময় ২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৪শ ছাত্রীদের মাঝে স্যানিটারী ন্যাপকিন বিতরণ করা হয়। এছাড়া জেলার আরো ২টি প্রতিষ্ঠানে ৪শ ছাত্রীদের এই প্রকল্পের মাধ্যমে ন্যাপকিন প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ফরিদা ইয়াসমিন তার বক্তব্যে বলেন, প্রধান মন্ত্রীর “নারীর ক্ষমতায়ন, মানবতার উন্নয়ন” বাস্তবায়নে একটি প্রকল্পের মাধ্যমে সাতক্ষীরায় ৬জন নারীকে প্রশিক্ষণ দিয়ে নিরাপদ প্রক্রিয়ায় প্রজাপতি নামের ন্যাপকিন উৎপাদন করে তা ছাত্রীদের মধ্যে বিতরন করা হচ্ছে। যা টেকসহ উন্নয়ন (এসডিজি) লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে কাজ করবে বলে আশা করেন তিনি। আরো বলেন, সমাজে নারী-পুরুষের সমতা আনতে কিশোরী স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিকল্প নেই। সেই লক্ষ্য বাস্তবায়ণ করতে কিশোরীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে এবং তাদের নিরাপদে রাখতে সরকার এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। যার সুফল আগামী ২ বছর ধরে ৪শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৮শত কিশোরী/ছাত্রী ভোগ করবে।

error: লাল সবুজের কথা !!