দেবহাটার পারুলিয়ায় বাস ও টেম্পোর সংঘর্ষ, নিহত ১

কে.এম রেজাউল করিম, দেবহাটা ব্যুরো : দেবহাটার পারুলিয়ায় বাস ও টেম্পোর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় টেম্পো যাত্রী ১ জন নিহত হয়েছে এবং অপর ১ জন মারাত্মক আহত হয়েছে।

নিহতের নাম মৃত্যুঞ্জয় বাছাড় (৩৫)। সে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার গাভা এলাকার নরেন্দ্র বাছাড়ের ছেলে।

নিহত মৃত্যুঞ্জয় নেসলে কোম্পানীর ডেলিভারী ম্যান ছিলেন। এ ঘটনায় আহত অপরজন হলেন একই এলাকার বঙ্কিমের ছেলে তাপস বাছাড় (৩৬)। তাকে সখিপুরস্থ দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন।

পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং বাসটির হেলপার ও বাসটিকে আটক করেছে। আটক বাস হেলপারের নাম সাজু হোসেন (৩০)।সে কালীগঞ্জ উপজেলার পুরোবাজপুর গ্রামের মৃত শেখ শওকত হোসেনের ছেলে। তবে ড্রাইভার পলাতক রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঢাকা মেট্রো-ব ১৪-৫০২২ নং একটি যাত্রীবাহী বাস কালীগঞ্জ দিক থেকে সাতক্ষীরা দিকে যাওয়ার সময় সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে পারুলিয়া গাজীবাড়ি মোড়ে পৌছালে কালীগঞ্জ দিকে যাওয়া একটি নেসলে কোম্পানীর টেম্পোর সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে টেম্পোটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং টেম্পোতে থাকা যাত্রী কয়েকজন আহত হয়।

তাদের মধ্যে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার গাভা এলাকার বাছাড়ের ছেলে মৃত্যুঞ্জয় (৩৫) ও একই এলাকার বঙ্কিমের ছেলে তাপস (৩৬) এর অবস্থা মারাত্মক হওয়ায় তাদেরকে দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠালে সেখান থেকে মৃত্যুঞ্জয়কে সাতক্ষীরা সিবি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত্যুঞ্জয়কে মৃত ঘোষনা করেন।

দেবহাটা থানার ওসি উজ্জ্বল কুমার মৈত্র মৃত্যুঞ্জয় নিহতের কথা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় থানায় এখনো পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ দেয়নি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা মর্গে প্রেরন করা হয়েছে বলে ওসি জানান।

error: লাল সবুজের কথা !!