তিস্তার পানি না দেয়ায় বাংলাদেশ ইলিশ দিচ্ছে না: মমতা

তিস্তার পানি না দেয়ায় বাংলাদেশ ইলিশ পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছে বলে দুঃখপ্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে সামনে পশ্চিমবঙ্গে প্রচুর ইলিশ উৎপাদন হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। খবর এনডিটিভির। মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে দেগঙ্গার বিধায়ক রহিমা বিবির এক প্রশ্নে তিনি এ কথা জানান। পদ্মার ইলিশ না পাওয়ায় বিধানসভায় আক্ষেপের সুর শোনা যায় মুখ্যমন্ত্রীর গলায়।

মমতা বলেন, বাঙালি মাছে-ভাতে থাকতে ভালোবাসে। কিন্তু বাংলাদেশকে আমরা তিস্তার জল দিতে পারিনি। তাই ওরা আমাদের ইলিশ মাছ দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে। ওরা আমাদের বন্ধু দেশ। কিন্তু জল নেই তো কোথা থেকে দেব?

তিনি আরও বলেন,ইলিশের প্রতি আমাদের রাজ্যের বাঙালীর প্রীতির কথা মাথায় রেখে, আমরা ডায়মন্ডহারবারে একটি রিসার্চ সেন্টার তৈরি করি। তারা এখন ইলিশের ওপর কাজ করছেন। ওই গবেষণা যদি সফল হয়, সারা বিশ্বে আমরা ইলিশ সরবরাহ করতে পারব।

ভারতে ২০১২ সালের মাঝামাঝি থেকে ইলিশ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে বাংলাদেশ। তিস্তার পানির দাবিতে বাংলাদেশ অনড় থাকলেও ভারতের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোনো ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে মমতা জানান,পরিস্থিতি যদি অনুকূল হত, তাহলে ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে পানিবণ্টন মেনে নিতেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তিস্তার জলবণ্টন মেনে না নেয়ায় তারা দুঃখ পেয়েছে। আমার ক্ষমতা থাকলে, নিশ্চিতভাবেই আমি তাদের সঙ্গে তিস্তার জলবণ্টন মেনে নিতাম। আমার কোনো সমস্যা নেই। বাংলাদেশ আমাদের বন্ধু, এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

error: লাল সবুজের কথা !!