তালায় পল্লীতে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে এক নারীসহ জখম ২জন

এসএম বাচ্চু,তালা প্রতিনিধি: তালার পল্লীতে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে এক নারীসহ দুইজনকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় উপজেলার লাউতাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জখমীরা হলেন, লাউতাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বার গাজীর ছেলে লুৎফর গাজী (৬০) ও লুৎফর গাজীর স্ত্রী আকলিমা বেগম (৫০)। আহতরা বর্তমানে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় জখমীর ছেলে দিদারুল ইসলাম বাদী হয়ে তালা থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছে।

এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলার লাউতাড়া গ্রামের মৃত জব্বার গাজীর ছেলে লুৎফর গাজীর সাথে তার আপন ছোট ভাই আলাউদ্দিন গাজী দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির সীমানার জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। জমিজমা বিরোধকে কেন্দ্র করে বড়ভাই লুৎফর গাজীকে প্রায়ই মারধর ও জীবন নাশের হুমকি দিয়ে আসছে ছোট ভাই আলাউদ্দিন গাজী। ইতোপূর্বে লুৎফর গাজী ও তার ছেলে দিদারুলকে দুইবার মারপিঠ করে জখমের ঘটনা ঘটিয়েছে আলাউদ্দীন গংরা।

তারই জের হিসাবে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আলাউদ্দিন, তার স্ত্রী জাহানারা বেগম, ছেলে শহিদুল ইসলাম শহিদ ও পুত্রবধূ তহমিনা বেগম পূর্ব পরিকল্পনা অনুসারে লুৎফর গাজীর ছেলে দিদারুল ইসলামের অনুপস্থিতিতে বাড়িতে হামলা করে বাড়িঘর ভাঙ্গচুর করতে শুরু করলে এতে বাধা দিতে গেলে লুৎফর গাজী ও তার স্ত্রী আকলিমা বেগমকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে । একপর্যায়ে লৎফর গাজীকে হত্যার উদ্দেশ্যে চোখের উপর লোহার কালা ঠুকিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। স্বামীকে বাচাতে স্ত্রী আকলিমা বেগম এগিয়ে আসলে তার শ্লীনতাহানি ও পিটিয়ে জখম করে আলাউদ্দিন গংরা। পরে এলাকাবাসি আহত লুৎফর গাজী ও স্ত্রীকে আশংকা জনক অবস্থায় উদ্ধার করে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে ।

তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মেহেদী রাসেল জানান, বিষয়টি শুনেছি এবং জখমীর ছেলে দিদারুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছে। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

error: লাল সবুজের কথা !!