ঢাবি ক্যাম্পাসে ভারী ও ঝুঁকিপূর্ণ যানবাহন নিয়ন্ত্রণে এস.এম হল ছাত্র সংসদ

আব্দুজ জাহের নিশাদ,ঢাবি : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মধ্যে দিয়ে অনবরতই চলছে ভারী ও ঝুঁকিপূর্ণ যানবাহন। যার ফলে শিক্ষার্থীরা নিরাপদে চলতে পারেনা ক্যাম্পাসে। এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোনো সিদ্ধান্ত না নেওয়ায় গত কাল থেকে আজ পর্যন্ত ২দিন পলাশী থেকে শহীদ মিনার সড়কে ভারী ও ঝুঁকিপূর্ণ যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখেন সলিমুল্লাহ মুসলিম হল ছাত্র সংসদ ।

এস এম হল ছাত্র সংসদের ভিপি এম এম কামাল উদ্দিন বলেন, ভারী ও ঝুঁকিপূর্ণ যানবাহন চলাচলের ফলে ক্যাম্পাসে দেখা দেয় যানজট ও অনিরাপদ চলাচল। উচ্চস্বরে হর্ণ বাজানো ও যানবাহন থেকে নির্গত কালো ধোঁয়ার ফলে শারীরিক ও মানসিক অসুস্থতায় ভুগছে শিক্ষার্থীরা। অবৈধ যানবাহনের বিরুদ্ধে এই পর্যন্ত ২৫টি মামলা করা হয়েছে বলে জানান ভিপি।

হল ছাত্র সংসদের জি এস জুলিয়াস সিজার তালুকদার বলেন, বিগত সময়ে পলাশী মোড়ে ঢাবি ক্যাম্পাস মুখি সড়কে দুই লেনের সড়কের এক লেনে ছয় ফুট উঁচুতে ভারী ও ঝুঁকিপূর্ণ যানবাহন এড়াতে একটি ভার স্হাপন করা হয়েছে। কিন্তু গত কয়েক মাস আগে আজিমপুরে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে তা অপসারণ করা হলে পরে তা আর প্রতিস্থাপন করা হয়নি।

হল সংসদের সমাজসেবা সম্পাদক মিলন খান বলেন, আমাদের দাবি শুধু একটি সড়কে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করা নয়। আমরা চাই ক্যাম্পাসের প্রত্যেক প্রবেশ পথে ভার স্হাপন করা এবং যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করা। আজকের পর যদি কখনো ক্যাম্পাস অবৈধ যানবাহন দেখা যায় তাহলে প্রশাসনিকভাবে শাস্তির আওতায় আনা হবে বলে জানান তিনি।

যানবাহন চলাচলে বাধা দেওয়ায় আজ দুপুর ১২টার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রতিনিধিরা , প্রধান প্রকৌশলী আফজাল হোসেন ও এস্টেট ম্যানেজার সুফরিয়া দাস এস এম হল ছাত্র সংসদের সাথে প্রভোস্ট অফিসে আলোচনায় বসেন।

আলোচনায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় পলাশী থেকে শহীদ মিনার সড়কে আগামীকালের মধ্যে আগের মতো এক লেনে ছয় ফুট উঁচু ভার প্রতিস্থাপন করা হবে। সড়কের অন্য লেনে একটি নতুন ভার আগামী ১৫দিনের মধ্যে প্রতিস্থাপন করা হবে বলে জানান তারা।

আলোচনায় আরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এস এম হলের ক্যান্টিনের মেঝেতে টাইলস, রান্না ঘরের মান উন্নয়ন, নতুন ব্যাসিন স্হাপন ও আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ডাইনিং সংস্করণের কাজ শুরু করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন প্রশাসনের এই কর্মকর্তারা।

error: লাল সবুজের কথা !!