কয়রার সেই অষ্টম শ্রেণীপাস দন্ত চিকিৎসকের চেম্বারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

802

ওবায়দুল কবির সম্রাট, কয়রা প্রতিনিধিঃ কয়রা উপজেলা সদরের সেই কথিত দন্ত চিকিৎসকের চেম্বারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়েছে। এ সময় ওই চিকিৎসক পালিয়ে যায়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত তার চেম্বারটি সীলগালা করে দেয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নবাগত উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অনিমেষ বিশ্বাস। এর আগে কথিত ওই দন্ত চিকিৎসক মোস্তফা কামালের ভ্রাম্যমান আদালতে ৫০,০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। সুযোগ বুঝে আবার চেম্বার খুলে বসেন তিনি। এছাড়া তার বিরুদ্ধে গত ১৪ জুলাই বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

তিনি কোন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ছাড়াই দীর্ঘ দিন কয়রা উপজেলা সদরে সাগর ডেন্টাল ক্লিনিক নামে চেম্বার খুলে চিকিৎসার নামে প্রতারণা করে আসছিলেন। প্রতিনিয়তই সেখানে সাধারণ মানুষ চিকিৎসার নামে অপচিকিৎসায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিলেন। নিউজ প্রকাশে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসায় সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়।

কয়রা উপজেলা সদরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে উপজেলার সদরে সরকারি স্বাস্থ্য বিধি ও নির্দেশনা সম্বলিত লিফলেট ও পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করাসহ জনগণকে সচেতন করেন উপজেলা নবাগত নিবার্হী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অনিমেষ বিশ্বাস।