কোটচাঁদপুর উপজেলা নির্বাচনে ভাইস-চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জনপ্রিয়তার শীর্ষে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রিয়াজ

25
কোটচাঁদপুর উপজেলা নির্বাচনে ভাইস-চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জনপ্রিয়তার শীর্ষে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রিয়াজ

কবির হোসেন, কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ): আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কোটচাঁদপুরে ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়তে চান ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি রিয়াজ হোসেন ফারুক। তিনি এরইমধ্যে দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের সাথে নির্বাচন কেন্দ্রীক মতবিনিময় শুরু করেছেন।

এবং প্রতিনিয়ত বিকাল থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বাজারে, পাড়ায় ও মহল্লায় গনসংযোগ করছেন। তার এই প্রচারনায় এলাকার জনগণের মধ্যে ব্যপক ভাবে সাড়া পড়েছে। বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে ক্লিন ইমেজের নেতা হিসেবে এরমধ্যেই তার গ্রহণযোগ্যতা তৈরি হয়েছে এবং জনপ্রিয়তার শীর্ষে আছেন সাবেক এই ছাত্রলীগ নেতা।

তিনি নির্বাচিত হলে এলাকার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত ও মাদক বিরোধী তৎপরতা আরো গতিশীল হবে বলে মনে করেন স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও এলাকার সাধারন ভোটার।

রিয়াজ হোসেন ফারুক ২০০৪ সালে কোটচাঁদপুর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মনোনীত হয়ে ২০১২ সাল অবধি দায়িত্ব পালন করেন এবং সফল সংগঠক এর মূল্যায়ন হিসেবে সম্মেলনের মাধ্যমে ২০১২ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে ২০১৭ সাল অবধি দায়িত্ব পালন করেছেন।

ক্লিন ইমেজের ছাত্রনেতা রিয়াজ হোসেন ফারুক বলেন, আ,লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্লিন ইমেজের তরুণ নেতাদের নিয়ে সরকার গঠন করেছেন। তাঁর এই পদক্ষেপে আমি উদ্বুদ্ধ হয়েছি। তাই আমি আমার মনোনয়ন নিয়ে খুব বেশী চিন্তিত নয়।

এছাড়া গত ২০১৪ সালের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি ভাইস-চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র তুলি ও জমা দিই, কিন্তু দলীয় সিদ্ধান্তে আমি আমার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছিলাম, সেই সময় আমাকে আগামী অর্থাৎ এবার নির্বাচনে মূল্যায়ন করার প্রতিশ্রƒতি দেয় তৎকালীন জেলা আওয়ামী লীগ ও কোটচাঁদপুর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। আমি এবারও মনোনয়ন প্রত্যাশী ও বেশ আশাবাদী মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে। আমি নির্বাচিত হলে জনগনের জন্য ভাল কিছু করার সুযোগ পাব বলে মনে করি। বিশেষ করে বেকার সমস্যা সমাধান, রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করব।

তিনি আরো বলেন, জনগন আমাকে নির্বাচিত করলে স্থানীয় সরকারের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রান্তিক মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেব। সব সময় মানুষের কল্যানে নিজেকে নিয়োজিত রাখার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন তিনি ।