কেশবপুরে হাটের পেরীফেরি ভূক্ত সম্পত্তি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ করার অভিযোগ

35

আজিজুর রহমান, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি:  কেশবপুরে হাট পেরীফেরি ইজারা দেওয়ায় সম্পত্তি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার পাঁজিয়া বাজারে গিয়ে দেখা গেছে মাদারডাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রউফের ছেলে মাহাবুর রহমান সেলিম মন্টু দীঘির পাড়ে কয়দিন আগে ধরে পেরীফেরি ইজারা দেওয়ায় সম্পত্তি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করায় পাঁজিয়া ইউনিয়ন সহকারী ভূক্ত কর্মকর্তা ঘর নির্মাণ বন্ধের জন্য নোটিশ করেছে যার অনুলিপি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) দেওয়া হয়।

এব্যাপারে মুঠোফোনে মাহাবুর রহমান সেলিম মন্টু কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, হাট পেরীফেরি ইজারা দেওয়ায় সম্পত্তি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ কাজ করেনি। ওই সম্পত্তি মালিকানা হওয়ায় আমি পাকা ভবন নির্মাণের কাজ শুরু করি। ভূমি কর্মকর্তা নোটিশ করার পর কাজ স্থগিত করা হয়েছে।

এব্যাপারে সরাসরি ইউনিয়ন সহকারী ভ‚মি কর্মকর্তা শহিদুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, মাহাবুর রহমান সেলিম মন্টু দীঘির পাড়ে কয়দিন আগে ধরে পেরীফেরি ইজারা দেওয়ায় সম্পত্তি দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করে। আমি বিষয়টি জানতে পেরে বন্ধের জন্য নোটিশ দিয়েছি। পরে জানতে পারি সে কাজ করা স্থগিত করে।

এব্যাপারে মুঠোফোনে পাঁজিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম মুকুলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পাকা ভবন নির্মাণের ব্যাপারে আমি কিছুই জানিনা।