কেশবপুরে মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের উপনির্বাচনে আওয়ামীলীগের ১৩ নেতা নির্বাচনী মাঠে

আজিজুর রহমান, কেশবপুর থেকে : কেশবপুরে মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চার চারবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবু বকর আবুর মৃত্যুর পর থেকে ওই ইউনিয়নে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। তফসিল ঘোষণা না হলেও দলীয় মনোনয়ন চুড়ান্ত করতে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ১৩ নেতা নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন।

কেউ কেউ সরাসরি, কেউ বা নানা কায়দায় প্রার্থীতার বিষয়টি জানান দিচ্ছেন ভোটারদের। দলীয় মনোনয়ন চুড়ান্ত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। আবার কেউ কেউ বলছেন দল মনোনয়ন দিক আর না দিক তারা প্রার্থী হবেন।

তথ্য অনুসন্ধানে দেখা গেছে, ১৪ টি গ্রাম নিয়ে গঠিত মজিদপুর ইউনিয়নের গত পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এ ইউনিয়ন থেকে আওয়ামীলীগের প্রার্থী ১ বার, বিএনপির প্রার্থী ৪ বার বিজযী হয়েছে। সর্বশেষ এক টানা ২ বার বিএনপির প্রার্থী এ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।

সরেজমিন উপজেলার এ ইউনিয়নটি ঘুরে বিভিন্নজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আওয়মীলীগের প্রার্থী চুড়ান্ত না হওয়ায় ১৩ জন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদিন সকাল থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করছেন। সম্ভাব্য এসব প্রার্থী নিয়ে পাড়া-মহাল্লা, চায়ের দোকানে ভোটারসহ আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মধ্যে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষন। কে পাবেন আওয়ামীলীগের মনোনয়ন।

জানা গেছে, ৩ নং মজিদপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও গত ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী গাজি গোলাম সরোয়র, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-দপ্তর সম্পাদক মনোজ তরফদার, কেশবপুর উপজেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য ও কেশবপুর উপজেলা পাদুুকা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুু, ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য মনিরুজ্জামান মনির, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল হালিম,

ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি মাস্টার মতলেব আলী, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম উজ্জল, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুস সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবি, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল মজিদ, উপজেলা আওয়ামীলীগে সাবেক কোষাধ্যক্ষ রেজাউল ইসলাম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল ইসলাম। সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল হালিম বলেন, দল আমাদের মনোনয়ন দিক আর না দিক আমরা মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের উপনির্বাচনে অবশ্যই প্রার্থী হব।

error: লাল সবুজের কথা !!