কেশবপুরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দু দফা হামলায় আহত ৪

37

আজিজুর রহমান, কেশবপুর প্রতিনিধি:
কেশবপুরে পূর্ব শত্রæতার জের ধরে প্রতিপক্ষরা দু দফা হামলা চালিয়ে মুদি ব্যবসায়ীকে মারপিট করাসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করে নগদ টাকা লুট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহতরা কেশবপুর হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছে।

এ ঘটনায় মুদি ব্যবসায়ী অনুকুল দাস বাদি হয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে কেশবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে উপজেলার খতিয়াখালী দাসপাড়া গ্রামের আনন্দ দাসের ছেলে অনুকুল দাস(৩৪) খতিয়াখালী দাসপাড়া মোড়ে দীর্ঘদিন ধরে অনুকুল দাস মুদির দোকানের ব্যবসা করে আসছে।একই গ্রামের মৃত নিত্য রজ্ঞন দাসের ছেলে বিপুল দাস, কোলম দাসের ছেলে কাজল দাস ও সজল দাসের সাথে স্থানীয়সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো। এইর জের ধরে শুত্রæবার বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে বিপুল দাস, কাজল দাস, সজল দাস মিলে অনুকুল দাসকে বিভিন্ন ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।

এ সয়ম মুদি ব্যবসায়ী প্রতিবাদ করলে তারা বাঁশের লাঠি দিয়ে মুদির দোকানে ঢুকে অনুকুল দাস (৩৪ কে মারপিট করাসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করে দোকান থেকে হালখাতা করার নগদ ৪৫ হাজার টাকা লুট নেয়। এদিকে একই জের ধরে শনিবার বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে বিপুল দাস, কাজল দাস, ও সজল দাস মিলে দু দফা হামলা চালিয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করে। এ সময় বাঁধা দিতে গেলে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হন মুদি ব্যবসায়ী অনুকুল দাস(৩৪) পলাশ(৩০) পরিমল দাস(৪২)সোহগ দাস(২৫)।

এ ব্যাপারে বিপুল দাসের বক্তব্য নেওয়ার জন্য বার বার ফোন দেওয়া হলেও তার ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জসীম উদ্দীন বলেন, মুদি ব্যবসায়ী অনুকুল দাস বাদি হয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে কেশবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।