কেশবপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলা আহত- ৩, গাছ কর্তন

28

আজিজুর রহমান, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি: কেশবপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষরা ১ ভ্যান চালককে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দেওয়াসহ বসত বাড়ির বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কর্তন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত ব্যক্তিকে কেশবপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওয়াজেদ আলী মোড়ল বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে কেশবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

উপজেলার সাতবাড়িয়া গ্রামের মৃত অহেদ আলী মোড়লের ছেলে আহত ভ্যান চালক সিরাজুল মোড়ল (৩২) সাংবাদিকদের জানান, দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল একই গ্রামের মৃত আনজালি মোড়লের ছেলে জবেদ আলী মোড়লের সঙ্গে। এরই জের ধরে শনিবার দুপুরে জবেদ আলী মোড়ল, তার ছেলে রফিকুল মোড়ল, চাচা আমির আলী মোড়ল, মামা ওহাব আলী মোড়ল মিলে দা, কুরাড় দিয়ে আমার বসত বাড়ির লাগানো বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কর্তন করতে থাকে। আমি বাঁধা দিতে গেলে আমাকে পিটিয়ে ডান হাতটি ভেঙ্গে দেয়। এ সময় আমার চাচা ওয়াজেদ আলী (৫৫) ও তার বৌমা সাকিলা বেগম (২৭) ঠেকাতে আসলে তাদেরকেও মারপিট করা হয়। এ ব্যাপারে সরাসরি রফিকুল মোড়লের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সিরাজুল মোড়ল, তার স্ত্রী, তার মা ও তার ”াচা ওয়াজেদ আলী মিলে আমাদের লাগানো বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কর্তন করে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ক্ষতি সাধন করেছে। তাদেরকে মারপিট করা কোন প্রশ্নই আসেনা। গাছ কর্তনের বিষয় ভালুকঘর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বরাবর ৭ জনের বিরুদ্ধে আমি বাদি হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার এস আই প্রসেনজিৎ বলেন, ওয়াজেদ আলী মোড়ল বাদী হয়ে কেশবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।