সর্বশেষ সংবাদ

কেশবপুরে এক যুবক জীবন দিয়ে প্রমাণ করল প্রেম কাকে বলে

আজিজুর রহমান, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি:
কেশবপুরে এক যুবক জীবন দিয়ে প্রমাণ করল প্রেম কাকে বলে। তার প্রেম পিতা-মাতা মেনে না নেওয়ার কারণে গলায় গামছা পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সংবাদ পেয়ে সকালে কেশবপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর মর্গে পাঠিয়েছে। এই ঘটনায় কেশবপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। যার নং- ৩০, ৭/৮/১৮।

জানা গেছে, উপজেলার কড়িয়াখালী গ্রামের আলী আজগর মোল্যার ছেলে ইউনুস আলী মোল্যা (১৬) পার্শ্ববর্তী বেগমপুর গ্রামের স্কুল পড়–য়া এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ইউনুস আলী তাদের প্রেমের সম্পর্কের কথা তার পিতা-মাতাকে জানালে মেয়ের পিতা গরীব হওয়ায় তার পিতা-মাতা ছেলের কথা প্রত্যাখান করায় গত সোমবার রাতে সবার অজান্তে পিতা-মাতার উপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে। তবে এলাকার লোকের মুখে মুখে এটা হত্যা না আত্মহত্যা এ নিয়ে নানা গুঞ্জন চলছে।

ইউনুসের মা রেহেনা বেগম মঙ্গলবার ভোরে রান্না করার জন্য দ্বিতীয় তলায় রাখা পাটখড়ি আনতে গেলে সিড়িতে তার ছেলে ইউনুসের লাশ দেখে কাউকে কিছু না বলে ইউনুসের চাচাতো ভাই টগরকে গোপনে ডেকে এনে প্রশাসনকে না জানিয়ে তড়িঘড়ি করে লাশ নামিয়ে আত্মহত্যাকে আড়াল করতে ঘুমের ঔষধ খেয়েছে বলে এলাকায় আত্মহত্যার প্রচার চালাতে থাকে।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার এস আই নাজমূল বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তেরর যশোর মর্গে পাঠানো হয়েছে।

error: লাল সবুজের কথা !!