সর্বশেষ সংবাদ

কেশবপুরে এক অসহায় পরিবারের বসত ঘর ভেঙ্গে দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করার চেষ্টার অভিযোগ

আজিজুর রহমান,কেশবপুর প্রতিনিধি: কেশবপুরে এক অসহায় পরিবারের বসত ঘর ভেঙ্গে দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় মান্দার চন্দ্র দাস বাদী হয়ে রবিবার নির্মাণকারী ঠিকাদারের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা প্রকৌশলী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাউশলা গ্রামের মৃত পাগল চন্দ্র দাসের ছেলে মান্দার চন্দ্র দাস, শ্রীপদ দাস, একই গ্রামের মৃত ঠাকুর চন্দ্র দাসের ছেলে নিত্যানন্দ দাস ও রতন দাসের কাছ থেকে বাউশলা ৯১ মৌজায় এ এস ৮৩৬ খতিয়ানে ২৫০৭ দাগে ৩৩ শতক, এএস ৮৩৭ খতিয়ানে ২৫০৭ দাগে ১৩ শতকের মধ্যে ৯ শতকসহ মোট ৪২ শতক জমি গত ১৪/৬/১৯৮৯ সালে ক্রয় করেন। জমি ক্রয়ের পর থেকে তারা সীমানা ঘেষা রাস্তা থেকে ২ ফুট ছেড়ে দিয়ে গত এক যুগ ধরে পাকা বসতবাড়ি নির্মান করে বসবাস করে আসছে।

কিন্তু কয়েকদিন আগে বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের বাউশলা বৌবাজার মোড় থেকে ডুমুরিয়া ১৮ মাইল গামী রাস্তাটির কেশবপুর অংশ পীচকরন কাজ শুরু হওয়ায় রাস্তাটি সম্প্রসারন হিসাবে ওই জমির ওপর মাটি ফেলা ও পাকা বসতঘর ভাঙ্গার জন্য হুমকি দিয়ে আসছে। হয়ত রাস্তা নির্মানকারী ঠিকাদার বা প্রতিষ্ঠান ওই বসতঘর ভেঙ্গে দিতে পারে।

এ ব্যাপারে সাব ঠিকাদার এরশাদ আলী সাংবাদিকদের জানান, মান্দার চন্দ্র দাসের জমির ওপর আমরা রাস্তা নির্মাণ করছি না। সরকারী জায়গার ওপরে রাস্তা নির্মাণের কাজ চলছে। আমাদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মিজানূর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

error: লাল সবুজের কথা !!