কেশবপুরে আনারস প্রতীকের পক্ষে ব্যাপক গণসংযোগ

আজিজুর রহমান, কেশবপুর থেকে: কেশবপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলামের আনারস প্রতীকের পক্ষে ভোট চেয়ে প্রতিদিন উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন, বাজার, পাড়া-মহল্লা, গ্রাম ও ব্যবসায়ীদের কাছে যেয়ে ব্যাপকভাবে গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণে পুরোদোমে নেমে পড়েছে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীসহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

আনারস প্রতীকের প্রচার-প্রচারণা ও গণসংযোগ চলছে জোরে সোরে। ভোটাররাও অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় রয়েছে আগামী ৩১ মার্চ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে। বুধবার দিনব্যাপী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম তার আনারস প্রতীকে ভোট চেয়ে ত্রিমোহিনী ও সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম, বাজারসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থান গণসংযোগ, উঠান বৈঠক ও পথসভা করেছে। গণসংযোগ, উঠান বৈঠক ও পথসভায় বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার মোহাম্মদ আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর শেখ এবাদত সিদ্দিকী বিপুল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর ইসলাম মুক্ত, দপ্তর সম্পাদক মফিজুর রহমান মফিজ, ত্রিমোহিনী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান আনিস, সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন দফাদার, বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমজেদ হোসেন, মঙ্গলকোট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন, পাঁজিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম মুকুল,

সুফলাকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ সরদার, গৌরিঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব, মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক এ্যাডভোকেট মিলন মিত্র, যশোর জেলা প্রজন্মলীগের সদস্য ও কেশবপুর নিউজ ক্লাবের সভাপতি আশরাফুজ্জামান, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও পৌর প্যানেল মেয়র বিএম বিশ্বাস শহিদুজ্জামান শহিদ, পৌর কাউন্সিলর জামাল উদ্দীন সরদার, যুগ্ন আহ্বায়ক আবু সাঈদ লাভলু, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী আজহারুল ইসলাম মানিক, যুগ্ন আহ্বায়ক জাকির হোসেন মুন্না, ছাত্রলীগ নেতা খন্দকার আব্দুল আজিজ প্রমুখ।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সদর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য কামাল হোসেন, মৃণাল কান্তি দাস, ওলিয়ার রহমান আওয়ামীলীগ নেতা মশিউর রহমান, আলতাফ বিশ্বাস, জাকির হোসেন, শহিদুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা ফারুক হোসেন, হাসান, ইমরান হোসেন, পৌর কৃষকলীগের সহ-সভাপতি ফারুক হোসেন বাবু, পাঁজিয়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক আসাদুজ্জামান, পৌর ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ, খন্দকার তুরফান, রহিম হোসেন, আব্দুল্লাহ সোহাগ প্রমুখসহ উপজেলার ১১ টি ইউনিয়ন ও পৌর আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা।

error: লাল সবুজের কথা !!