কালিগঞ্জে বঙ্গবন্ধু স্মৃতিস্তম্ভ স্থাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহন

54

নিজস্ব প্রতিনিধি: কালিগঞ্জ শহীদ সোহরাওয়ার্দী পার্কে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে স্থানে ভাষণ দিয়েছিলেন সেই স্থানটি চিহ্নিত করে বঙ্গবন্ধু স্মৃতিস্তম্ভ( প্রতিকৃতি) স্থাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। ৫ মার্চ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১০ টায় শহীদ সোহরাওয়ার্দী পার্কে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে উপজেলা স্থান চিহ্নিতকরণ কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়।

১৯৭০ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কালিগঞ্জ শহীদ সোহরাওয়ার্দী পার্কে এক নির্বাচনী বক্তব্য প্রদান করেন। সেই সময় পার্কে বকুলতলার পাশে মঞ্চ নির্মাণ করা হয়। বঙ্গবন্ধু বিকালে আসবেন এই আশায় তখন হাজার হাজার জনসাধারণ তার বক্তব্য শোনার জন্য অপেক্ষায় ছিল। অবশেষে সন্ধ্যার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি সাদা প্রাইভেটে করে উত্তর কালিগঞ্জ বাজার পারে হরিপদ মুদি দোকানের সামনে অবস্থান করেন তিনি গাড়ি থেকে নেমে কিছুক্ষণ হরিপদ সাহা দোকানের দাঁড়িয়ে স্থানীয় ব্যক্তিবগর্ ও দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলেন।

এরপর নৌকায় পার হয়ে ডাকবাংলার পাশে পার্কের মঞ্চে উপস্থিত হন। তখন উপস্থিত সকলে করতালি দিয়ে বঙ্গবন্ধুকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। প্রায় ৫০ বছর আগে বঙ্গবন্ধুর বক্তব্য দেওয়ার স্থানটি চিহ্নিত করে সেখানে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি স্তম্ভ( প্রতিকৃতি) স্থাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের তদারকিতে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ দেওয়ার স্থানটি চিহ্নিতকরণ একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সভাপতি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার নরিম আলী মুন্সী এর সভাপতিত্বে ও কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আব্দুর রউফ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সহকারী কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মনির আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা এস এম মমতাজ হোসেন মন্টু, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ হোসেন, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি কালিগঞ্জ শাখা সভাপতি শেখ আনোয়ার হোসেন, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাস বাচ্চু, দৈনিক দৃষ্টিপাত পত্রিকার কালিগঞ্জ ব্যুরো প্রধান আশেক মেহেদী, কালিগঞ্জ প্রতিনিধি আহমদ উল্লাহ বাচ্চু, নির্বাহী সদস্য শেখ মোদাচ্ছের হোসেন জান্টু প্রমুখ। বঙ্গবন্ধু যে স্থানটিতে ১৯৭০ সালে ভাষণ দিয়েছিলেন সেই স্থানটি চিহ্নিত করে সংরক্ষন করতে হবে।

জাতির জনকের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে মুজিববর্ষে ১৭ ই মার্চ জাতীয় শিশু দিবস ও স্বাধীনতার মহান স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিবিজড়িত কালিগঞ্জের সেই স্থানে সুন্দর একটি মঞ্চ এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি স্থাপন করা হবে। এজন্য উপজেলা প্রকৌশলী দিয়ে পাার্কে প্রথম পর্যায়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিষয়টি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক রাসেলকে জানানো হবে।

আগামী ১৭ ই মার্চ ২০২০ থেকে ১৭ ই মার্চ ২০২১ সাল পর্যন্ত মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হবে। বঙ্গবন্ধুর কালিগঞ্জের স্মৃতিবিজড়িত স্থানে ১৭ ই মার্চ ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপনের মাধ্যমে শুভ সূচনা করা হবে বলে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।