সর্বশেষ সংবাদ

কলারোয়ায় সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ময়নাকে মুক্তির দাবিতে উপজেলা আ.লীগের সমাবেশ

জুলফিকার আলী,কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়ায় আ.লীগের মহিলা নেত্রী ও সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা আনোয়ার ময়নাকে ষড়যন্ত্র মূলক একটি মামলায় আটক করায় তার মুক্তির দাবিতে উপজেলা আ.লীগের প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় এ উপলক্ষে কলারোয়া উপজেলা আ.লীগের পশুহাট মোড়ে দলীয় অফিসে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশে উপজেলা আ.লীগের সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপনের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য দেন-আ.লীগনেতা কলারোয়া পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান বুলবুল, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কাজী আসাদুজ্জামান সাহাজাদা, পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আব্দুল হামিদ সরদার, মাহবুবুর রহমান মফে, প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম, আসলামুল আলম আসলাম, এসএম মনিরুল ইসলাম, শেখ ইমরান হোসেন, আফজাল হোসেন হাবিল, সামসুদ্দিন আল মাসুদ বাবু, রবিউল হাসান, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আ.লীগের দপ্তর সম্পাদক আব্দুর রহমান,

সদস্য সরদার আনছার আলী, প্রভাষক হাফিজুর রহমান, কেড়াগাছি ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মারুফ হোসেন, আজিজুর রহমান, সায়েদ হোসেন সহ বিভিন্ন ্এলাকার আ.লীগের নেতাকর্মীবৃন্দ। সমাবেশে নেতাকর্মীবৃন্দ বলেন-আমরা কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ অত্যন্ত বিস্ময় এবং দু:খের সাথে জানাচ্ছি, গত ইং ১৬/০৯/২০১৯ তারিখ দেয়াড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এবং তিন-তিনবার দেয়াড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সাবেক জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রয়াত স,ম, আনারুল ইসলামের সহধর্মিনী কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান নির্বাহী সদস্য এবং বিগত ৫ বৎসরের নির্বাচিত সফল মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান।

সৎ এবং নিষ্ঠাবান, সদালাপী জনাবা সেলিনা আনোয়ার ময়নাকে কলারোয়া থানা পুলিশ আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন। এ ঘটনায় কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ রীতিমত বিস্মিত। কারণ খোর্দ বাওড় নিয়ে সৃষ্ট গোলযোগে আহত শচীন এর উপর যে বা যাহারা হামলা করছে, আমরা তার বা তাহাদের শাস্তি দাবী করি। কিন্তু উদ্দেশ্যমূলকভাবে সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ময়নাকে জড়ানোর বিষয়টি আমরা ষড়যন্ত্রের অংশ মনে করি। এই ঘটনার সময় সে উপস্থিত ছিলো না, এটি পুলিশ ফরওয়াডির্ং এ আমরা লক্ষ করেছি। সুতরাং আমরা তার মুক্তি দাবী করি। দীর্ঘ সময় তার এবং প্রয়াত স্বামীর আচরণে মানুষ মুগ্ধ, কেউ কোন প্রশ্ন তোলেনি। সেকারণে, আমরা কলারোয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ কলারোয়া থানা পুলিশের কাছে দাবী করছি-সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আমাদের মহিলা নেত্রী ময়নাকে অনতিবিলম্বে মুক্তি দিবেন।

error: লাল সবুজের কথা !!