সর্বশেষ সংবাদ

আলোকবর্তিকা হাতে নিরলস ছুটে চলা

রেজওয়ানুল আজাদ নিপুন: মহান জাতীয় সংসদের নির্বাচনী আসন ১০৮,সাতক্ষীরা ০৪(শ্যামনগর-কালীগঞ্জ আংশিক)।সুন্দরবন,বঙ্গোপসাগর ও ভারত সীমান্ত সংলগ্ন বাংলাদেশের বৃহত্তম উপজেলা শ্যামনগর এর ১২ট ইউনিয়ন ও কালীগঞ্জের ০৮ টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত।স্বাধীনতার দীর্ঘ ২৫ বছর পর ১৯৯৬ সালের ১২ জুন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় তৎকালীন সাতক্ষীরা ০৫ আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত বর্ষীয়ান একজন নেতা সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

দুর্ভাগ্যজনক বিষয় ২০০১ এর নির্বাচনে তৎকালীন সাংসদের ব্যার্থতায়(!) ক্ষুব্ধ আওয়ামীলীগ সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা উপজেলা বিএনপির একজন শীর্ষ নেতাকে আওয়ামীলীগ হতে নৌকা মার্কায় মনোনয়ন দেন।কিন্তু তৎকালীন উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বের বিরোধিতায় তিনি পরাজিত হন।অতঃপর ২০০৮ এর ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে মহাজোটের প্রার্থী নির্বাচিত হয়ে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে বিমাতাসুলভ আচরণ শুরু করেন।

সাংগঠনিক বিপর্যয়ের উপক্রম হলে ২০১৪ সালের নির্বাচনে জামায়াত অধ্যুষিত এবং সহিংসতা প্রবণ এই আসনে আওয়ামীলীগকে সাংগঠনিকভাবে মজবুত অবস্থানে নিতে এবং নৌকার ভোট ব্যাংক গঠনে মনোনয়ন দেন শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি জগলুল হায়দার কে।তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর স্থানীয় সরকারের অভিজ্ঞতা থেকে গতানুগতিক ধারার বাইরে যেয়ে জনসম্পৃক্ততা ও গ্রহণযোগ্যতা সৃষ্টির চেষ্টায় ব্যতিক্রমী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে নজর কাড়তে শুরু করেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টা বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজীব ওয়াজেদ জয় এর স্পষ্ট নির্দেশনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সক্রিয়ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি প্রচার করে দেশব্যাপী ইতিবাচক ভাবমূর্তি তৈরি করেন।অনভ্যস্ত সমালোচকের উপহাস উপেক্ষা করে একের পর এক ব্যতিক্রমী কর্মে জনগণের কাছে প্রিয় পাত্রে পরিণত হন।

প্রথম আলোর মত সরকারের কড়া সমালোচক দৈনিক পর্যন্ত আওয়ামীলীগের ইতিবাচক ভাবমূর্তি গঠনে জগলুল হায়দার এমপি এর ভূয়সী প্রশংসা করে সংবাদ প্রকাশ করে।এছাড়াও দেশি বিদেশি নানা পত্রিকা ও নিউজ পোর্টালে সংবাদ শিরোনাম হয়েছেন ইতিবাচক কর্মে।

একাদশ জাতীয় নির্বাচন কড়া নাড়ছে দুয়ারে।মনোনয়ন প্রত্যাশায় অনেকেই দলীয় প্রধানের নির্দেশনা অমান্য করে স্থানীয় সংসদের সমালোচনায় মুখর হলেও তিনি নিরলস সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রচার এবং দেশরত্ন শেখ হাসিনার পুনরায় প্রধানমন্ত্রী হওয়ার গুরুত্ব প্রচারকে প্রাধান্য দিয়ে নিরলস ছুটছেন নির্বাচনী এলাকার সর্বত্র।

এখানেও ব্যতিক্রমী প্রচারে জগলুল হায়দার এমপি প্রমাণ করলেন তিনি জয় করতেই এসেছেন,জনগণের হৃদয়।

লেখক: সাংবাদিক ও অনলাইন এক্টিভিস্ট

error: লাল সবুজের কথা !!